পাতা:রাধারাণী-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাধারাণী فثلا দীর্ঘ, অতি সূক্ষ্ম পরিষ্কার ঘনকৃষ্ণ মুরঞ্জিত কেশঙ্গালে মণ্ডিত ; চক্ষু বৃহৎ, কটাক্ষ স্থির, ভ্ৰযুগ স্বল্প, ঘন, দুরায়ত এবং নিবিড় কৃষ্ণ ; নাসিকা দীর্ঘ এবং উন্নত ; ওষ্ঠাধর রক্তবর্ণ, ক্ষুদ্র এবং কোমল ; গ্রীবা দীর্ঘ, অথচ মাংসল ; অন্যান্য অঙ্গ বস্ত্রে আচ্ছাদিত, কেবল অঙ্গুলিগুলি দেখ৷ যাইতেছে, সেগুলি শুভ্র, সুগঠিত, এবং একটি বৃহদাকার হীরকে রঞ্জিত । রাধারাণী সেই স্থানে আসিয়া পরিচারিকাকে বিদায় করিয়া দিলেন। রাধারাণী আসিবামাত্র দর্শকের বোধ হইল যে, সেই কক্ষমধ্যে এক অভিনব সূর্য্যোদয় হইল—রুপের আলোকে তাহার মস্তকের কেশ পৰ্য্যন্ত যেন প্রদীপ্ত হইয়া উঠিল। আগস্থকের উচিত, প্রথম কথা কহা—কেন না, তিনি পুরুষ এবং বয়োজ্যেষ্ঠ–কিন্তু তিনি সৌন্দর্ঘ্যে বিমুগ্ধ হইয়া নিস্তব্ধ হইয়া রহিলেন। রাধারাণী একটু অসন্তুষ্ট হইয়৷ বলিলেন, “আপনি এরূপ গোপনে আমার সঙ্গে সাক্ষাতের অভিলাষ করিয়াছেন কেন ? আমি স্ত্রীলোক, কেবল বসন্তের অনুরোধেই আমি ইহা স্বীকার করিয়াছি।” আগন্তুক বলিল, “আমি আপনার সহিত এরূপ সাক্ষাতের অভিলাষী হইয়াছি, ঠিক ত{ নহে ।” রাধারাণী অপ্রতিভ হইলেন। বলিলেন, “তা নয়, বটে। তবে বসন্ত কি জন্য এরূপ অনুরোধ করিয়াছেন, তাহা কিছু লেখেন নাই। বোধ হয়, আপনি জানেন।" আগন্তুক একখানি অতি পুরাতন সংবাদপত্র বাহির করিয় তাহ রাধারাণীকে দেখাইলেন। রাধারাণী পড়িলেন ; কামাখ্যা বাবুর স্বাক্ষরিত রুক্মিণীকুমার সম্বন্ধে সেই বিজ্ঞাপন। রাধীরাণী দাড়াইয়াছিলেন—দাড়াইয়া দাড়াইয়া নারিকেলপত্রের হ্যায় কাপিতে লাগিলেন । আগন্তুকের দেবতুল্য গঠন দেখিয়া, মনে ভাবিলেন, ইনিই আমার সেই রুক্মিণীকুমার। আর থাকিতে পারিলেন না –জিজ্ঞাসা করিয়া বলিলেন, “আপনার নাম কি রুক্মিণীকুমার বাবু ?” আগন্তুক বলিলেন, “না।” “না” শব্দ শুনিয়াই রাধরাণী ধীরে ধীরে আসন গ্রহণ করিলেন। আর দাড়াইতে পারিলেন ন—ৰ্তাহার বুক যেন ভাঙ্গিয়া গেল। আগন্তক বলিলেন, “না। আমি যদি রুক্মিণীকুমার হইতাম, তাহা হইলে, কামাখ্যা বাবু এ বিজ্ঞাপন দিতেন না। কেন না, তাহার সঙ্গে আমার পরিচয় ছিল। কিন্তু যখন এই বিজ্ঞাপন বাহির হয়, তখনি আমি ইহা দেখিয়া তুলিয়। রাখিয়াছিলাম।” রাধারাণী বলিল, “যদি আপনার সঙ্গে এই বিজ্ঞাপনের কোন সম্বন্ধ নাই, তবে আপনি ইহা তুলিয়। রাখিয়ছিলেন কেন ?”