পাতা:রাধারাণী-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


दिउँौग्न भ७ : झङ्घर्ष अतििरक्रम శ్రీని রূপ ? কতটুকু চাই ? কিছু চাই। লোকে দেখিয়া, না নিষ্ঠীবন ত্যাগ করে। আমাকে দেখিয়া কেহ নিষ্টবন ত্যাগ করে না। রূপ যাহা আছে, তাহাই আমার যথেষ্ট। স্বাস্থ্য ? আমার স্বাস্থ্য অদ্যাপি অনন্ত । বল ? লইয়া কি করিব ? প্রহারের জন্য বল আবশ্বক। আমি কাঁহাকেও প্রহার করিতে চাহি না । বুদ্ধি ? এ সংসারে কেহ কখন বুদ্ধির অভাব আছে মনে করে নাই—আমিও করি না। সকলেই আপনাকে অত্যন্ত বুদ্ধিমান বলিয়া জানে, আমিও জানি। বিদ্যা ? ইহার অভাব স্বীকার করি, কিন্তু কেহ কখন বিদ্যার অভাবে আপনাকে অমুখী মনে করে নাই। আমিও করি না। ধৰ্ম্ম ? লোকে বলে, ধৰ্ম্মের অভাব পরকালের দুঃখের কারণ, ইহকালের নহে। লোকের চরিত্রে দেখিতে পাই, অধৰ্ম্মের অভাবই দুঃখ । জানি আমি সে মিথ্যা । কিন্তু জানিয়াও ধৰ্ম্মকামনা করি না । আমার সে দুঃখ নহে । প্রণয় ? স্নেহ ? ভালবাসা ? আমি জানি, ইহার অভাবই স্থখ—ভালবাসাইীি:খ। সাক্ষী লবঙ্গলতী । তবে আমার দুঃখ কিসের ? আমার অভাব কিসের ? আমার কিসের কামনা যে, তাহা লাভে সফল হইয়া দুঃখ নিবারণ করিব ? আমার কাম্য বস্তু কি ? বুঝিয়াছি। আমার কাম্য বস্তুর অভাবই আমার দুঃখ । আমি বুঝিয়াছি যে, সকলই অসার। তাই আমার কেবল দুঃখ সার। চতুর্থ পরিচ্ছেদ কিছু কাম্য কি খুজিয়া পাই না? এই অনন্ত সংসার, অসংখ্য রত্বরাজিময়, ইহাতে আমার প্রার্থনীয় কি কিছু নাই ? যে সংসারে এক একটি দুরবেক্ষণীয় ক্ষুদ্র কীট পতঙ্গ অনন্ত কৌশলের স্থান, অনন্ত জ্ঞানের ভাণ্ডার, যে জগতে পথিস্থ বালুকার এক এক কণা, অনস্তরত্নপ্রভব নগাধিরাজের ভগ্নাংশ, সে জগতে কি আমার কাম্য বস্তু কিছু নাই। দেখ, আমি কোন ছার। টিণ্ডল, হক্সলী, ডার্বিন, এবং লায়ল এক আসনে বসিয়া যাবজ্জীবনে ঐ ক্ষুদ্র নীহারবিন্দুর, ঐ বালুকাকণার বা ঐ শিয়ালকাটাফুলটিল গুণ বর্ণনা করিয়া উঠিতে পারেন ন—তবু আমার কাম্য বস্তু নাই ? আমি কি ? 餐 纖