পাতা:রাধারাণী-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


- às ब्रञ्जनौ উত্তরটুকু সন্ন্যাসীর জিক্ত—আমি এটুকু প্রত্যাশা করি নাই। তখন জিজ্ঞাসা করিলাম, “তবে পড়েন কেন ?” স। কেন, শুনিতে কি কষ্টকর ? আমি । না, শুনিতে মন্দ নয়, বিশেষ আপনি সুকণ্ঠ । তবে যদি কিছু ফল নাই, তবে পড়েন কেন ? - স। যেখানে ইহাতে কাহারও কোন অনিষ্ট নাই, সেখানে পড়ায় ক্ষতি কি ? আমি জারি করিতে আসিয়াছিলাম,—কিন্তু দেখিলাম যে, একটু হটিয়াছি—সুতরাং আমাকে চাপিয়া ধরিতে হইল। বলিলাম, “ক্ষতি নাই, কিন্তু নিষ্ফলে কেহ কোন কাজ করে নী—যদি বেদগান নিষ্ফল, তবে আপনি বেদগান করেন কেন ?” স। আপনিও ত পণ্ডিত, আপনিই বলুন দেখি, বৃক্ষের উপর কোকিল গান করে কেন ? র্যাপরে পড়িলাম । ইহার দুইটি উত্তর আছে, এক—“ইহাতেই কোকিলের সুখ”— দ্বিতীয়, “স্ত্রীকোকিলকে মোহিত করিবার জন্য ।” কোনটি বলি ? প্রথমটি আগে বলিলাম, “গাইয়াই কোকিলের মুখ ।” * স। গাইয়াই আমার সুখ । অামি । তবে টপ্পা, খিয়াল প্রভৃতি থাকিতে বেদগান করেন কেন ? কোন কথাগুলি মুখকর—সামান্ত গণিকাগণের কদৰ্য্য চরিত্রের গুণগান সুখকর, ন দেবত্তাদিগের অসীম মহিমাগান মুখকর ? 歌 হারিয়া, দ্বিতীয় উত্তরে গেলাম। বলিলাম, “কোকিল গায়, কোকিলপত্নীকে মোহিত করিবার জন্য । মোহনার্থ যে শারীরিক ফুৰ্ত্তি, তাহাতে জীবের মুখ। কণ্ঠস্বরের ফুৰ্ত্তি সেই শারীরিক ফুৰ্ত্তির অন্তর্গত। আপনি কাহাকে মুগ্ধ করিতে চাহেন ?” সন্ন্যাসী হাসিয়া বলিলেন, “আমার আপনার মনকে । মন আত্মার অনুরাগী নহে । আত্মার হিতকারী নহে। তাহাকে বশীভূত করিবার জন্ত গাই।” - আমি । আপনার দার্শনিক, মন এবং আত্মা পৃথক্ বলিয়া মানেন। কিন্তু মন একটি পৃথকৃ, আত্মা একটি পৃথকৃ পদার্থ, ইহা মানিতে পারি না। মনেরই ক্রিয় দেখিতে পাই—ইচ্ছা, প্রবৃত্ত্যাদি আমার মনে । সুখ আমার মনে, দুঃখ আমার মনে । তবে আবার মনের অতিরিক্ত আত্মা, কেন মানিব ? যাহার ক্রিয়া দেখি, তাহাকেই মানিব । যাহার কোন চিহ্ন দেখি না, তাহাকে মানিব কেন ?