পাতা:রাসেলাস.djvu/২০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


為ふく রাসেলাস । যে নানাগ্রকর মেঘের উদয় হয়, সৰ্ব্বদা তাহাই লক্ষ্য করিয়া অনেক সময় নষ্ট করে । এইভ তাহাদিগের প্রধান জামোদ প্রমোদ ।” - “ বস্ত্রের উপর ভূচীর কৰ্ম্ম করিয়া তাহার যে-শিল্পনৈপুণ্য প্রকাশ করিয়া থাকে, তদ্বিষয়ে কখন, কখন আমিও তাহাদিগের অহিকুল করিতাম, আমার সহ: মন্ত্রীরাও কথন, কখন সাহায্য করিত । আপনি অনায়াসেই বুঝিতে পারিতেছেন সে সময়ে আমার মন জলুল হইতে পৃথক হইয়। অন্য দিকে ধাবমান হইত। করে।ৰন্ধন দুঃখ ও নিকায়ার বিরহধণতন; সীমান্য শিল্পকৰ্ম্মে, ব্যস্ত থাকতে কখন নিলারিত হইয়া থাকিতে পারে ন} {” - - “ আরৰকামিনীদিগের কথোপকথনেঞ্জ অধিক সন্তোষ লাভের সম্ভাবনা নাই । তাহারা কি বিষয়ের কথা বৰ্ত্তি কহিতে পারে ? জগদীশ্বর এই অসীম জগল্প গুলে যে নান! প্রকার অtশ্চর্ষ্য বস্তু স্বষ্টি করিয়া লাপনার মহিম বিস্তার করিয়! রাখিয়াছেন,তাহারা তাহার কিছুই দেখে নাই। যাহা তাহার দেখে নাই, তাহার কিছুই জানিতেও পারে না । কারণ, তাহার লেখ পড় শিখে না। . তাহারা চক্ষু থাকিতেও অন্ধ, কর্ণ থাকিভেও বধির এৰং বুদ্ধি থাকিতেও মূর্খ। রাল্যকলারধি এক ক্ষুদ্র স্থানে বাস করে ; যে সকল সামান্য বস্তু সূৰ্ব্বদ