বিষয়বস্তুতে চলুন

পাতা:রূপসী বোম্বেটে - দীনেন্দ্রকুমার রায়.pdf/২৬

উইকিসংকলন থেকে
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৮
রূপসী বোম্বেটে

রণ-তন্ত্রের সভাপতি নির্ব্বাচিত হইলেন,—তখন তাঁহার অতীত জীবনের ইতিহাস সম্বন্ধে কেহ অনুসন্ধানও কারল না। তাঁহার উদারতা, মহত্ব, সমদর্শিতা ও শাসন শক্তির নিকট সকলেই মস্তক অবনত করিল। রাজনীতি ক্ষেত্রে যাঁহাদের সহিত তাঁহার প্রতিদ্বন্দিতা ছিল,—তাঁহারাও তাঁহার প্রাধান্য স্বীকার করিতে বাধ্য হইলেন।

 সভাপতি পিয়ারসন যে দিন সভাপতি নির্ব্বাচিত হন—সেই দিনের স্মৃতির প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য প্রতিবৎসর সেই তারিখে সালভেরিটা-রাজধানীতে একটি রাজনৈতিক উৎসবের আয়োজন হইত। এরূপ মহোৎসব সে রাজ্যে আর দ্বিতীয় ছিল না। সম্ভ্রান্ত নরনারীগণ মহা উৎসাহে এই উৎসবে যোগদান করিতেন। উৎসবারম্ভের তিন মাস পূর্ব্ব হইতে উৎকৃষ্ট গাউন ও পরিচ্ছদাদির জন্য প্যারিসে ও লণ্ডনে ‘অর্ডার’ প্রেরিত হইত। নাচের মজলিসে সর্ব্বোকৃষ্ট বসনভূষণে সজ্জিত হইবার আশায় সম্রান্ত সমাজ জলের মত অর্থ ব্যয় করিতেন।

 ডাক্তার হক্সটন রাইমার নামক একজুন ভবঘুরে এই উৎসবের অব্যবহিত পূর্ব্বে সালভেরিটা রাজধানীতে উপস্থিত হয়। সুচিকিৎসক হইলেও সে ডাক্তারী ছাড়িয়া জুয়াচুরী বাটপাড়ী দ্বারা জীবিকা নির্ব্বাহ করিত। সম্রান্ত সমাজে মিশিবার তাহার অদ্ভুত শক্তি ছিল এবং সে এমন কৌশলে চুরী করিত যে, কেহ তাহা ধরিতে পারিত না। সালভেরিটার রাষ্ট্রীয় উৎসবে একটা বড়রকম দাঁও মারিবার আশাতেই সে সেখানে উপস্থিত হইয়াছিল। সে কোনও কৌশলে একখানি নিমন্ত্রণ পত্র সংগৃহীত করিয়া উৎসবের দিন সায়ংকালে রাজপ্রাসাদে নাচের মজলিসে প্রবেশ করিল।

 নাচের মজলিস লতা-পত্রে ও নানাপ্রকার সুগন্ধি কুসুমে সুসজ্জিত হইয়াছিল; প্রত্যেক বাতায়ন জাতীয় পতাকায় ও পুষ্পমাল্যে