পাতা:রূপসী বোম্বেটে - দীনেন্দ্রকুমার রায়.pdf/৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

২৮

রূপসী বোম্বেটে

রোপের সর্বশ্রেষ্ঠ ডিটেটিভ;—যাহা হউক, আমার বিশ্বাস এমন একদিন আসিবে যে দিন সেই চতুর দরিদ্র সেই চতুর ডিটেটিভকেও। রীতিমত শিক্ষা দিতে পারিবে।”

 আমেলিয়া জিজ্ঞাসা করিলেন, “এই বিখ্যাত ডিটেটিভের নাম আপনি জানেন কি?”

 রাইমার বলিল, “তাহায় নাম রবার্ট ব্লেক, আপনি বোধ হয় তাহার নাম শুনেন নাই?”

 আমেলিয়া হঠাৎ মুখ ফিরাইলেন। একখানি বৃটীশ সদাগরী জাহাজ লুণ্ঠনের অভিযোগে মিঃ ব্লেক আমেলিয়াকে গ্রেপ্তার করিবার জন্য কিরূপ চেষ্টা করিতেছিলেন, আমেলিয়া তাহা জানিতেন; মিঃ ব্লেকের সহিত তাঁহার পরিচয়ও ছিল। কিন্তু তিনি রাইমারের নিকট সে সম্বন্ধে কোনও কথা বলিলেন না।

 রাইমার তাঁহার বিচলিত ভাব লক্ষ্য না করিয়া বলিতে লাগিল, “বলিয়াছি আমার গল্পের নামক দরিদ্র হইলেও বড়ই চতুর, সে কৌশলে অনেকের বহু সম্পত্তি আত্মসাৎ করিয়াছিল; কিন্তু রবার্ট ব্লেকের তাড়ায় বিব্রত হইয়া স্বদেশ পরিত্যাগ পূর্ব্বক বিদেশে গমন করিল, এবং সুযোগের প্রতীক্ষা করিতে লাগিল; কিন্তু সেখানে শীঘ্র অর্থাগমের কোনও সুযোগ ঘটিল না। যাহা হউক, তাহার সৌভাগ্যক্রমে এক দিন সে কোনও সম্ভ্রান্ত ব্যক্তির গৃহে নাচের মজলিশে। কৌশলে প্রবেশ করিতে সমর্থ হইল। সেখানে সে এইরূপ একটি বিরাম-কুঞ্জে একটি চিরহরিৎ গুল্মের অন্তরালে বসিয়া বিশ্রাম করিতে করিতে কিছু দূরে একটি পরমাসুন্দরী যুৱতীকে দণ্ডায়মান দেখি। পাইল। সেই যুবতীর হাতে এইরূপ অস্ট্রিচ্‌ -পালকের একখানি পাখা ছিল; তাহার হাণ্ডেলটিও এইরূপ কারুকার্য খচিত, গজদন্তে নিম্মিত।