পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (অষ্টম সম্ভার).djvu/১০৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শুভদ কি বাপু ? এ দেনা-পাওনার কথা যেন তৃতীয় ব্যক্তি না শুনতে পায়। কেন ? একটু কারণ আছে। হরমোহন বিষয়ী লোক ; সদানন্দর মনের ভাব বুঝিতে পারিয়া বলিলেন, নিঃশব্দে দান করতে চাও ? সদানন্দ চুপ করিয়া রহিল। তাহার মুখ দেখিয়া, সেই নি:স্বাৰ্থ দয়া দেখিয়া হরমোহনেরও সেইসময়ের জন্য লজ্জ করিতে লাগিল। কিন্তু পূৰ্ব্বেই বলিয়াছি, তিনি রীতিমত বিষয়ী লোক, এ-ভাব অধিকক্ষণ স্থায়ী হইতে দিলেন না ? একটা শুষ্ক হাস্ত করিয়া বলিলেন, বাপু, আমাদের বয়স হয়েচে, এজন্য চক্ষুলজ্জাও ততটা নাই, না হলে হারাণের অবস্থা আমি বিশেষরূপেই জ্ঞানি। যা হোক, তুমি যখন নিঃশব্দে দান করতে পারচ, তখন আমিও নিঃশব্দে গ্রহণ করতে পারব। সেজন্য তুমি চিন্তা ক’রো না ! & সদানন্দ প্রফুল্ল-মুখে নমস্কার করিয়া তথা হইতে নিষ্ক্রস্থ হইল । 속 শুভদা শুনিল, হারাণবাবু শুনিলেন, ছলনাও শুনিল যে, তাহর সহিত সারদার বিবাহ হইতেছে। এ বিবাহ সদানন্দ ঘটাইয়াছে । শুনিয়া রাসমণি মন্তব্য প্রকাশ করিলেন যে, সদানন্দ পূৰ্ব্বজন্মে শুভদার পুত্র ছিল । সদানন্দর সমক্ষে একথা বলা হইয়াছিল, সে একথা নিরুত্তরে স্বীকার করিয়া লইল, অতঃপর কোনরূপ প্রতিবাদ করিল না । নানা গোলযোগে পড়িয় তাহার এ-পর্য্যন্ত পিসিমর সম্পত্তি দেখিতে যাওয়া ঘটিয়া উঠ নাই, এখন সময় পাইয়৷ একথা সে শুভদাকে জ্ঞাত করিল, শুভদা তাহাতে সন্মত হইল ; তখন পোটলা-পুটলি বাধিয়া কিছু দিবসের জন্য ত্রমান সদানন্দ বিদেশযাত্রা করিল। শুভদার সংসার এখন তাহার সংসার হুইয়াছে ; স্বতরাং ইহার সমস্ত বন্দোবস্ত করিয়া যাইতে ভুলিল না এবং আরো, বিবাহের অপরাপর সরঞ্জাম প্রস্তুত করিয়া রাখিবার জন্য শুভদাঙ্কে বিশেষ করিয়া বলিয়া গেল । সেখানে যাইয়া সদানন্দ মৃত্ত পিসিমাতার সমস্ত জমি-জমা বেশ করিয়া দেখিয়া শুনিয়া লইল, তাহার পর একজন মুকুব্বি স্থির করিয়া এক কথায় তাহাকে সমস্ত বিক্রয় করিয়া অৰ্দ্ধ মাসকালের মধ্যেই হলুদপুরে পুনরায় ফিরিয়া আসিল । হরমোহনের সহিত লেখাপড়া করিল, গহনা গড়াইল, জিনিসপত্র আনাইল, বিবাহের দিন স্থির o