পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (একাদশ সম্ভার).djvu/২৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


छब्रिख्रशैन করে শুধু যে পন্থকেই নষ্ট করে, তা নয়, নিজেকেও দুৰ্ব্বল কৰে—ধ্বংস করে। তোমার এতটা মন ভারী করে থাকবার প্রয়োজন হতো না ঠাকুরপে, যদি একবার এই কথাটিই ভেবে দেখতে ষে, আমাকে বাড়ির বাইরে এনে কারো সত্যিকার অধিকারে পা দিয়েচ কি না। আমি বিধবা, আমার উপরে কারো ভায়সঙ্গত দাবী নেই, তুমিও অবিবাহিত, তোমার হৃদয়ের উপরেও কারে অধিকার নেই। অতএব, আমাকে ভালবেসে তুমি অল্পায় কিছুই করনি, এ-কথাটা বোঝাত শক্ত নয়। দিবাকর হতবুদ্ধি হইয়া বলিয়াছিল, সে কি বোঁদি, অবৈধ-প্রণয় যদি অন্যায় নয়, তবে সংসারে আর অন্যায় আছে কোথায় ? কিরণময়ী বলিয়াছিল, অবৈধ কোথায় ? যাকে অবৈধ বলে মনে করচ, সে তোমার সংস্কার—মুক্তি নয়। ভাল, তোমার অবৈধ জিনিসটি কি শুনি ? দিবাকর উদ্দীপ্ত হইয়া জবাব দিয়াছিল, যাহা বিবাহের দ্বারা সুপবিত্র নয়— যাকে সমাজ স্বীকার করবে না—যাকে আত্মীয় বন্ধুবান্ধব ঘৃণার চক্ষে দেখবে, তাই অবৈধ। এ সোজা কথা । 4. কিরণময় হাসিয়া উত্তর করিয়াছিল, কৈ সোজা ? একটু ভেবে দেখলে সোজা কথাও এমনি বাকী হয়ে দাড়ায় যে, দুনিয়ার অনেক বঁকি জিনিসই হার মেনে যায়। তোমাকে তো অনেকবার বলেচি ঠাকুরপো, তোমার ঐ স্থপবিত্র অপবিত্র জ্ঞানটা সংস্কার,—যুক্তি নয়। এই সংসারেই স্ত্রী-পুরুষের এমন অনেক মিলন হয়ে গেছে, যাকে কোনমতেই পবিত্র বলা যায় না। আমি নজির তুলে আর কথা বাড়াতে চাইনে ঠাকুরপো, তোমার ইচ্ছে হয় ইতিহাস-পুরাণ পড়ে দেখো । অথচ, সে-সব মিলনকেও সমাজ স্বীকার করেছিলো এবং অবশেষে বিয়ের মন্ত্র দিয়েও স্থপবিত্র করে নেওয়া হয়েছিল। ঠাকুরপো, আমাদের ঐ পাথুরেঘাটার বাড়ির পাশে যদি কখমুনির আশ্রম থাকত, তা হলে শকুন্তলা যে কাওটি ঘটিয়েছিলেন, তাতে শুধু মুনিঠাকুরের জ্ঞাত-গুষ্ট নয়—সমস্ত পাথুরেঘাটার লোককে একঘরে হয়ে থাকতে হতো। কৈ সে প্রণয়কাহিনী পড়তে ত কোন সতী-সাধবীরই চোখ-মুখ লক্ষীয় রাঙা হয়ে ওঠে না । না না, ব্যস্ত হয়ে উঠে না ঠাকুরপো, আমি সতী-সাধবীর ওপর কটাক্ষ করচিনে। কিংবা একালে সেকালে মিলিয়েও দিচ্চিনে। একাল একালই হয়ে থাক, এবং তারা যে যেখানে আছেন, ভাল হয়েই থাকুন, আমার কিছুতেই আপত্তি নেই, কিন্তু সেকালের শকুন্তলাকে কেন যে একালের কোন নর-নারীই অন্তরে অস্তরে মন্দ বলে ঘৃণা করতে পারে না এইটেই বিচিত্র । ক্ষণকাল নীরব থাকিয়া আস্তে আস্তে বলিয়াছিল, ঘৃণা কেন যে করতে পারে না জানো ঠাকুরপো, শুধু পারে না এইজন্যেই যে, মিলন স্টার বেভাৰেই হোক, মিলনের ኧ¢ዔ eeنس{=ډ و