পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (চতুর্থ সম্ভার).djvu/৬১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শ্রীকান্ত হইতে চাহে না—বজ্রযুষ্টি এতটুকু শিথিল করিয়াও আমাকে সে নিস্কৃতি দিবে না, এ মীমাংসা চুকিয়াছে। কিন্তু এধানে আর না। সাধুসঙ্গ মাথায় থাক, স্থির করিলাম কালই এস্থান ত্যাগ করিব । বৈষ্ণবী হঠাৎ চকিত হুইয়া উঠিল--এই বt: ! তোমার জন্তে যে চা জানিয়েচি গোসাই । বলে কি ? পেলে কোথায় ? সহরে লোক পাঠিয়েছিলুম। যাই, তৈরী করে আনি গে। কোথাও পালিয়ো नt ८६न } না। কিন্তু তৈরী করতে জানো ত ? বৈষ্ণবী জবাব দিল না, শুধু মাথা নাড়িয়া হাসিমুখে চলিয়া গেল। সে চলিয়া গেলে সেইদিকে চাহিয়া মনের মধ্যে কেমন একটা ব্যথা বাজিল। চাপান আশ্রমের ব্যবস্থা নয়, হয়ত নিষেধই আছে, তবু ও-জিনিসটা যে আমি ভালবাসি এ খবর সে জানিয়াছে এবং সহরে লোক পাঠাইয়া সংগ্ৰহ করিয়াছে। তাহার বিগত জীবনের ইতিহাস জানি না, বর্তমানেরও না, কেবল আভাসে এইটুকু শুনিয়াছি তাহ ভাল নয়, তাহ নিন্দার্হ, শুনিলে লোকের ঘৃণা জন্মে। তথাপি আমার কাছে সেকাহিনী সে লুকাইতে চাহে নাই, বলিবার জন্তই বার বার পীড়াপীড়ি করিয়াছে, শুধু আমিই শুনিতে রাজী হই নাই। আমার কৌতুহল নাই—কারণ প্রয়োজন নাই। প্রয়োজন তাহার । একলা বসিয়া সেই প্রয়োজনের কথাটা ভাবিতে গিয়া স্পই দেখিতে পাইলাম, আমাকে না বলিয়া তাহার অন্তরের গ্লানি ঘুচিতেছে না- মনের মধ্যে সে কিছুতেই জোর পাইতেছে না। শুনিয়াছি আমার শ্ৰীকান্ত নামটা কমললতার উচ্চারণ করিতে নাই। জানি না কে তাহার এই পরমপূজ্য গুরুজন এবং কবে সে ইহলোক হইতে বিদায় হইয়াছে। দৈবাৎ আমাদের নামের মিলটাই বোধ করি এই বিপত্তির স্বষ্টি করিয়াছে এবং তখন হইতে কল্পনায় সে গত-জনমের স্বপ্নসাগরে ডুব মারিয়া সংসারের সকল বাস্তবতায় खलांअलेि कििञ्चां८छ् । তবু মনে হয় বিস্ময়ের কিছু নাই। রসের আরাধনায় আকণ্ঠ মগ্ন থাকিস্থাও তাহার একান্ত নারী-প্রকৃতি আজও হয়ত রসের তত্ত্ব পায় নাই, সেই অসহায় অপরিতৃপ্ত প্রবৃত্তি এই নিরবচ্ছিন্ন ভাব-বিলাসের উপকরণ-সংগ্রহে হয়ত আজ ক্লাপ্ত—দ্বিধায় পীড়িত। সেই তাহার পথভ্রষ্ট বিভ্রান্ত মন আপন অজ্ঞাতসারে কোথায় ষে অবলম্বন খুজিয়া মরিতেছে, বৈষ্ণবী তাহার ঠিকানা জানে না-আঙ্গ তাই সে চমকাইয়া বারে বারে te