পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (চতুর্থ সম্ভার).djvu/৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঐকান্ত কিন্তু এই দুটো দিনের মধ্যে আমাকে এত তুমি জানলে কি করে । জানলুম তোমাকে ভালবেসেচি বলে । শুনিয়া মনে মনে বলিলাম, তোমার দুঃখ আর চোখের জলের প্রভেদটা এতক্ষণে বুঝতে পেরেছি কমললতা। অবিশ্রাম ভাবের পূজো আর রসের আরাধনার বোধ করি এমনি পরিণামই ঘটে । প্রশ্ন করিলাম, ভালোবেসেচ একি সত্যি কমললতা ? ই! সত্যি । কিন্তু তোমার জপ-তপ, তোমার কীৰ্ত্তন, তোমার রাত্ৰিদিনের ঠাকুরসেবা এসবের কি হবে বল ত ? বৈষ্ণবী কহিল, এরা আমার আরও সত্যি, আরও সার্থক হবে উঠবে ? চল না গেtলাই, সব ফেলে দু’জনে পথে বেরিয়ে পড়ি ? ঘাড় নাড়িয়া বলিলাম, সে হয় না কমললতা, কাল আমি চলে যাচ্চি । কিন্তু ষাবার আগে গহরের কথাটা একটু জেনে যেতে ইচ্ছে করে । বৈষ্ণবী নিশ্বাস ফেলিয়া শুধু বলিল, গহরের কথা ? না, সে গুনে তোমার কাজ নেই। কিন্তু সত্যই কি কাল যাবে ? ই, সত্যিই কাল যাব । বৈষ্ণবী মুহূৰ্ত্তকাল স্তব্ধ থাকিয়া বলিল, কিন্তু এ আশ্রমে আবার তুমি আসবে, তখন কিন্তু কমললতাকে খুজে পাবে না গোসাই । فسوا এখানে আর একদও থাকা উচিত নয় এবিষয়ে সন্দেহ ছিল না, কিন্তু তখনি কে যেন আড়ালে দাড়াইয়া চোখ টিপিয়া ইশারায় নিষেধ করে, বলে, যাবে কেন ? ছ’-সাতদিন থাকবে বলেই ত এসেছিলে—থাক না। কষ্ট ত কিছুই নেই। রাত্রে বিছানায় গুইয়া ভাবিতেছিলাম, কে ইহার একই দেহের মধ্যে বাস করিয়া একই সময়ে ঠিক উন্ট মতলব দেয় ? কাহার কথা বেশী সত্য ? কে বেণী আপনার ? বিবেক, বুদ্ধি, মন, প্রবৃত্তি—এমন কত নাম, কত দার্শনিক ব্যাখ্যাই না ইহার আছে, কিন্তু নিঃসংশয় সত্যকে আজও কে প্রতিষ্ঠিত করিতে পারিল ? যাহাকে ভাল বলিয়া মনে করি, ইচ্ছা আসিয়া সেখানে পা বাড়াইতে বাধা দেয় কেন ? নিজের মধ্যে এই বিরোধ, এই দ্বন্দ্বের শেষ হয় না কেন ? মন বলিতেছে আমার চলিয়া বাওয়াই শ্ৰেন্থঃ, চলিয়া যাওয়াই কল্যাণের, তবে পরক্ষণে সেই মনের দু'চোখ ভরিয়া న్సిళీ