পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/১২৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ ভবানী কিছুক্ষণ চুপ করিয়া থাকিয়া আবার জিজ্ঞাসা করিলেন, অধ্যাপকবিদায়ের ফর্দটা ছিড়ে ফেলে দিলি যে? কাল সকালেই নিমন্ত্রণ-পত্র না পাঠালে আর সময় হবে না বাবা । গোকুল ঠিক তেমনি করিয়া জবাব দিল, না হয় নাই হবে ? ভবানী কিছু বিন্মিত কিছু বিরক্ত হইয়া কহিলেন, ছি গোকুল, এ-সময়ে ও-রকম অধীর হলে ত হবে না। কি হয়েচে আমাকে খুলে বল—আমি সমস্তই ঠিক করে দেব। মায়ের কথার উত্তরে গোকুল তাহার, কম্বলের শয্যা ত্যাগ করিযী চোখ পাকাইয় উঠিয়া বসিল। কাহার সহিত কি ভাবে কথা কহিতে হয় সে কোনদিন শিক্ষা করে নাই। কৰ্কশকণ্ঠে কহিল, তোমার যে মতলব শোনে মা, সে একটা গাধা। বাবা তোমার কথা শুনত বলে কি আমিও শুনব ? আমি দশটি ব্রাহ্মণ খাইয়ে শুদ্ধ হব, কোন জাকজমক করব না।—বলিয়া সে তৎক্ষণাৎ দেওয়ালের দিকে মুখ করিয়া শুইয়া পড়িল। । ভবানী শাস্তস্বরে কহিলেন, ছি বাবা, তিনি স্বর্গে গেছেন–র্তার সম্বন্ধে কি এমন করে কথা কইতে আছে ! -- r গোকুল জবাব দিল না। তিনি কিছুক্ষণ চুপ থাকিয়া পুনরায় কহিলেন, এরকম করলে, লোকে কি বলবে বল দেখি বাছা! যাদের যেমন সঙ্গতি, তাদের তেমনি কাজ করতে হয়, না করলেই অখ্যাতি রটে । --- গোকুল তেমনিভাবে থাকিয়াই কহিল, বুটাক গে শালারা। আমি কারো ধার ধারিনি যে ভয়ে মরে যাব। . = * ভবানী বলিলেন, কিন্তু তার এতে তৃপ্তি হবে কেন ? তিনি যে এত বিষয়-আশয় রেখে গেলেন, তার মত কাজ না করলে ত তিনি স্বর্থী হবেন না। - „or ভবানী ইচ্ছা করিয়াই গোকুলের বড় ব্যথার স্থানে ঘা দিলেন। পিতাকে সে যে কি ভালবাসিত তাহা তিনি জানিতেন । , গোকুল উঠিয়া বসিয়া কাদ-বাদ স্বরে কহিল, খরচের কথা কে বলেচে মা। যত ইচ্চে, তোমরা খরচ কর ; কিন্তু যত দিন যাচ্চে ততই যে আমার হাত-পা বন্ধ হয়ে আসছে। বিনোদ অভিমান করে উদাসীন হয়ে গেল মা, আমি একলা কি করে কি করব ?—বলিয়া সে অকস্মাৎ উচ্ছসিত হইয়া কাদিয়া উঠিল। ' * ভবানী নিজেকেও আর সামলাইতে পারিলেন না। কাদিয়া ফেলিলেন, অনেকক্ষণ নিঃশব্দে থাকিয়া শেষে আচলে চোখ মুছিয়া অশ্রজড়িতম্বরে জিজ্ঞাসা করিলেন, সে কি এ খবর পেয়েচে গোকুল ? . . ; গোকুল তৎক্ষণাৎ কহিল, পেয়েচে বই কি মা । ১১৬