পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/১৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বৈকুণ্ঠের উইল করি, আমি থাকতে বিনোদকে আর এত কষ্ট দেওয়া কেন ? উপোস-তিবেশ কি ওর ওই রোগ দেহতে সহ কবে ? হয়ত বা অম্লখ হয়ে পড়বে। আমি বলি—খাওয়াশোওয়া ওর যেমন অভ্যাস তেমনি চলুক । চক্ৰবৰ্ত্তী নিরুৎসাহভাবে কহিল, না পারলে— কথাটা গোকুল শেষ করিতেই দিল না । বলিল, পারবে কি কবে, তুমিষ্ট বল দেখি ? অামাদের এ সব কুলি-মজুরের দেহ—এতে সব সয় । কিন্তু ওর ত তা নয় ! পাঁচ-সাতটা পাশ করে যে দেশের মাথার মণি হয়েচে, তার দেহতে আর আমার দেহতে তুমি তুলনা করে বসলে ? কে আছিস্ রে ওখানে—ভূতো ? যা ত একবার চট করে আমাদের ভট্চায্যি মশাইকে ডেকে আন ! না হয় যত টাকা লাগে-শ্ৰাদ্ধের সময় আমি মূল্য ধরে দেব । তা বলে ত মায়ের পেটের ভাইকে মেরে ফেলতে পারব না। ওকে আমি আলো-চালের হবিন্তি করিয়ে নিকেশ করতে পারব না, এতে তিনি যাই বলুন । চক্রবর্তী অত্যন্ত অপ্রতিভ হইয়া সায় দিয়া কহিল, সে ত ঠিক কথা বড়বাবু। তবে কিনা লোকে বলবে— আর লোকে কি বলবে ব'লে কি নিজের ভাইটাকে মেরে ফেলব ? তোমার এ সব কি বুদ্ধি হ’লো, বল ত চক্কোৰ্ত্তিমশাই ? না না, ফর্দি-টর্দ নিয়ে তোমার এখন তাকে জালাতন করবার দরকার নেই। মুখে যা হোক একটু কিছু দিয়ে আগে সে স্থস্থ হোক —বলিয়া গোকুল নিতান্ত অকারণেই সে-বেচারার উপর রাগ করিয়া চলিয়া গেল । سb চায়ের বাটটা বিনোদ ব্রাহ্মণের হাত হইতে লইয়৷ ছুড়িয়া ফেলিয়া দিল । কিন্তু সে-বস্তুটা যে কত গোপনে প্রস্তুত হইয়াছিল এবং পাত্রটা যে কাহার বুকের উপর গিয়া কতখানি আঘাত করিল, সে শুধু অন্তধ্যামীই দেখিলেন। সমস্ত দিনের মধ্যে বিনোদ অনেকেরই সহিত কিছু-কিছু কথাবার্তা কহিল বটে, কিন্তু বড় ভাইয়ের ছায়া দেখিলেই সে সরিয়া যাইতে লাগিল। অথচ সে ছায়াও ১২৯ ר כ-"eל