পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/১৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


अनंद्र९-मांझिङ7-न२4यंह আসবেন না ? তিনি না এলে এ-সময়ে সামলাবে কে ? নিমতলার কুণ্ডুদের জাড়তের বাবাই হলেন সৰ্ব্বেসৰ্ব্ব । কিন্তু তা বলে এমন বিপদে মেয়ে-জামাইকে তিনি ত ফেলে দিতে পারবেন না ! গোকুল চুপ করিয়া শুনিতে লাগিল। মনোরমা অত্যন্ত খুণী এবং ততোধিক উৎসাহিত হইয়া বলিতে লাগিল, তোমার দোকান-পত্র যা-কিছু ফেলে দাও বাবার ঘাড়ে। আর কি কাউকে কিছু দেখতে হবে ? শুধু বলবে, আমি জানিনে, বাবা জানেন। ব্যস। তখন ঠাকুরপোই বল, আর যেই বল, কারু সাধ্যি হবে না যে তার কাছে দাত ফোটাবেন । বুঝলে না --বলিয়া মনোরমা একান্ত অর্থপূর্ণ একটা কটাক্ষ করিল। মান আলোকে গোকুল তাহা দেখিতে পাইল কি না, বলা যায় না, কিন্তু সে ই-না কোন কথাই কহিল না । তাহার পরেও অনেক ভাল ভাল কথা বলিয়াও মনোরম যখন আর স্বামীর নিকট হইতে কোন সাড়াই পাইল না, তখন বাতাসটা যে কোন মুখে বহিতেছে, তাহ ঠাহর করিতে না পারিয়া সে সে-রাত্রির মত ক্ষাস্ত দিল। সকাল বেলা গোকুল অতিশয় ব্যস্তভাবে ভবানীর ঘরের স্বমুখে আসিয়া কহিল, মা, লোহার সিন্ধুকের চাবিটা কি বিনোদ তোমার কাছে রেখে গেছে ? ভবানী সংক্ষেপে বলিলেন, কই না! চাবিটা গোকুলের নিজের কাছেই ছিল । কিন্তু সে মনে মনে অনেক মতলব করিয়াই এই মিথ্যাটা আসিয়া কহিয়াছিল। ভাবিয়াছিল, এমন জিনিসটা বিনোদের হাতে দেওয়া সম্বন্ধে মা নিশ্চয়ই ব্যস্ত হইয়া উঠিবেন । কিন্তু মায়ের সংক্ষিপ্ত উত্তরের মুখে তাহার সমস্ত কৌশলই ভাসিয়া গেল। তখন সে মানমুখে আস্তে আস্তে কহিল, কি জানি, সে-ই কোথায় রাখলে, না আমিই কোথায় ফেললুম! ভবানী কোন কথাই কহিলেন না। এই ভিড়ের বাড়িতে সিন্ধুকের চাবির উদ্দেশ পাওয়া যাইতেছে না, এ-সংবাদেও মা যখন কিছুমাত্র উদ্বেগ প্রকাশ করিলেন না এবং তাহার একান্ত নির্লিপ্ততা গোকুলের বুকে যে কি শূল বিধিল, তাহাও যখন তিনি চোখ তুলিয়া একবার দেখিলেন না, তখন সে যে কি বলিবে, কি করিয়া মাকে সংসার-সম্বন্ধে সচেতন করিয়া তুলিবে, তাহার কোন কুলকিনারাই চোখে দেখিতে পাইল না। খানিকক্ষণ চুপ করিয়া দাড়াইয়া থাকিয়া কহিল, শম্ভু আর দরবারী পিসীমাদের যে আনতে গেল, কই তারাও ত এখনো এসে পড়ল না ! ভবানী মূছকণ্ঠে কহিলেন, কি জানি বলতে পারিনে ত । গোকুল বলিল, ভাগ্যে লোক পাঠাতে তুমি বলেছিলে মা। এখন না আসেন, তাদের ইচ্ছা। কিন্তু আমরা ত দোষ থেকে খালাস হয়ে গেলুম। তুমি যে কতদূর १७९