পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


वेिङीन्न श्jि শাস্তিকুঞ্জ বারুই নদীতীরে বীজগা'র জমিদার ৮রাধামোহনের নির্মিত বিলাসভবন শান্তিকুঞ্জ। সংস্কারের অভাবে আজ তাহা জীর্ণ, শ্ৰীহীন, ভগ্নপ্রায় । তাহারই একটা কক্ষে তক্তাপোষের উপর বিছানা, বিছানায় চাদরের অভাবে বহুমূল্য শাল পাতা ; শিয়রের দিকে একটা গোল টেবিল, তাহাতে মোটা বঁধানো একখানা বইয়ের উপর আধপোড়া একটা মোমবাতি। তাহারই পাশে একটা পিস্তল। হাতের কাছে একটা টুল, তাহাতে সোডার বোতল, স্বরাপূর্ণ গ্লাস ও মদের বোতল, বোতলটা প্রায় শেষ হইয়া আসিয়াছে— পার্থে দামী একটা সোনার ঘড়ি-ঘড়িটা ছাইয়ের আধারস্বরূপে ব্যবহৃত হইয়াছে – আধপোড়া একখণ্ড চুরুট হইতে তখনও ধূমের রেখা উঠিতেছে। সম্মুখের দেয়ালে গোটা-দুই নেপালী কুকুর টাঙানো, কোণে একটা বন্দুক ঠেস দিয়া রাখা, তাহারই অদূরে মেঝের উপর একটা শৃগালের মৃতদেহ হইতে রক্তের ধারা বহিয়া শুকাইয়া গিয়াছে। ইতস্তত বিক্ষিপ্ত কয়েকটা শূন্ত মদের বোতল । একটা ডিসে উচ্ছিষ্ট ভূক্তবিশেষ তখনও পরিষ্কৃত হয় নাই, ইহারই সন্নিকটে একটা দামী ঢাকাই চাদরে হাত মুছিয়া ফেলিয়া দেওয়া হইয়াছে—সেটা মেঝেতে লুটাইতেছে। জীবানন্দ চৌধুরী বিছানায় আড় হইয়া পড়িয়া । পায়ের দিকের জানালাটা ভাঙ্গা, তাহার ফাক দিয়া বাহিরের একটা গাছের ডালের খানিকটা ভিতরে ঢুকিয়াছে। দুইদিকে দুইটি দরজা—দরজা ঠেলিয়া জীবানন্দের সেক্রেটারী প্রফুল্ল প্রবেশ করিল । ] প্রফুল্ল । সেই লোকট। এখানেও এসেছিল দাদা । জীবানন্দ । কে বল ত ? প্রফুল্ল । সেই মাদ্রাজী সাহেবের কৰ্ম্মচারী, যিনি আখের চাষ আর চিনির কারখানার জন্যে সমস্ত দক্ষিণের মাঠটা কিনতে চান। সত্যই কি ওটা বিক্রী করে দেবেন ? জীবানন্দ । নিশ্চয় । আমার এখন ভয়ানক টাকার দরকার । প্রফুল্প। কিন্তু অনেক প্রজার সৰ্ব্বনাশ হবে । জীবানন্দ । তা হবে, কিন্তু আমার সৰ্ব্বনাশটা বাচবে । - প্রচুর। আর একটি লোক বাইরে বসে আছেন, তার নাম জনাৰ্দ্দন রায়। আসতে বলব ? -