পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/২০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ অকুরাধা বলিল, ওর বিমাতা যিনি আসবেন শুনেচি তিনি শিক্ষিতা মেয়ে। স্থ্য, তিনি বি. এ. পাশ করেচেন । কিন্তু বি. এ. পাশ ত ওর জ্যাঠাইমাও করেচেন। নিশ্চয় করেচেন। কিন্তু বি. এ. পাশের কেতাবের মধ্যে দেওরপোকে যত্ন করবার কথা লেখা নেই। সে পরীক্ষা তাকে দিতে হয়নি। * কিন্তু রুগ্ন শ্বশুর-শাশুড়ী ? সে-কথাও কি কেতবে লেখে না ? না । এ প্রস্তাব আরও হাস্যকর । হাস্যকর নয় এমন কি কিছু আছে ? আছে। বিন্দুমাত্র অঙ্গুযোগ না করাই হচ্ছে আমাদের সমাজের স্বভদ্র বিধি । অকুরাধ ক্ষণকাল মৌন থাকিয়া বলিল, এ বিধি আপনাদেরই থাক। কিন্তু—যে-বিধি সকলের সমান সে হচ্চে এই যে, ছেলের চেয়ে বি. এ. পাশ বড় নয় । এমন মেয়েকে ঘরে আনা অনুচিত । কিন্তু আনতে কাউকে ত হবেই। যে-দলের আবহাওয়ার মধ্যে গিয়ে আমরা দাড়িয়েচি সেখানে বি. এ. পাশ নইলে মানও বঁাচে না, মনও বোঝে না, এবং বোধ হয় ঘরও চলে না । মা-বাপ-মরা বোনপোদের জন্যে গাছতলা স্বীকার করে নিতে চায় এমন মেয়ে নিয়ে আমাদের বনবাস করা চলে, কিন্তু সমাজে বাস করা চলে না । অনুরাধার কণ্ঠস্বর পলকের জন্ত তীক্ষু হইয়া উঠিল—না, সে হবে না। একজন নির্দয় বিমাতার হাতে তুলে দিতে ওকে আপনি পারবেন না। 影 বিজয় কহিল, সে ভয় নেই। কারণ তুলে দিলেও হাত থেকে আপনিই গড়িয়ে কুমার নীচে এসে পড়বে। কিন্তু তাই বলে তিনি নির্দয়ও নন, এবং আমার ভাবী-পত্নীর স্বপক্ষে আপনার কথার আমি তীব্র প্রতিবাদ করি। মার্জিত রুচিসম্মত উদাস অবহেলায় তাদের নেতিয়ে-পড়া আত্মীয়তায় বর্বরতার লেশ নাই । ও দোষটা দেবেন না । অনুরাধ হাসিয়া বলিল, প্রতিবাদ যত খুশি করুন, কিন্তু জিজ্ঞাসা করি, নেতিয়েপড়া আত্মীয়তার মানেটা হ’লে কি ? বিজয় বলিল, ও আমাদের বড় সার্কেলের পারিবারিক বন্ধন। ওর কোড আলাদা, চেহারা স্বতন্ত্র। ওর শেকড় টানে না রস, পাতার রঙ সবুজ না হতেই ধরে হলুদের বর্ণ। আপনি পাড়াগায়ে গৃহস্থ-ঘরের মেয়ে, ইস্থলে-কলেজে পড়ে পাশ করেননি, পার্টিতে পিক্‌নিকে মেশেননি, ওর নিগুঢ় অর্থ আপনাকে আমি বোঝাতে পারব না। কেবল এইটুকু আশ্বাস দিতে পারি, কুমারের বিমাতা এসে তাকে বিষ እቕ•