পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/২৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লণলন্ত । ছেলেবেলায় আমার এক বন্ধু ছিল তার নাম লালু। অৰ্দ্ধ শতাব্দী পূৰ্ব্বে-অর্থাৎ, সে এতকাল পূৰ্ব্বে যে, তোমরা ঠিক-মত ধারণা করতে পারবে না—আমরা একটি ছোট বাঙলা ইস্কুলের এক ক্লাসে পড়তাম। আমাদের বয়স তখন দশ-এগারো। মানুষকে ভয় দেখাবার, জবা করবার কত কৌশলই যে তার মাথায় ছিল তার ঠিকানা নেই। ওর মাকে রবাবের সাপ দেখিয়ে একবার এমন বিপদে ফেলেছিল যে, তিনি পা মচ কে প্রায় সাত-আটদিন খুড়িয়ে চলেছিলেন । তিনি রাগ করে বললেন—ওর একজন মাস্টার ঠিক করে দিতে। সন্ধ্যেবেলার এসে পড়াতে বসবেন, ও আর উপদ্রব করবার সময় পাবে না । শুনে লালুর বাবা বললেন, না। র্তার নিজের কখনো মাস্টার ছিল না, নিজের চেষ্টায় অনেক দুঃখ সয়ে লেখ-পড়া করে এখন তিনি একজন বড় উকীল। ইচ্ছে ছিল ছেলেও যেন তেমনি করেই বিস্ত্য লাভ করে। কিন্তু সৰ্ত্ত হলো এই যে, যে-বার লালু, ক্লাসের পরীক্ষায় প্রথম না হতে পারবে তখন থেকে থাকলে ওর বাড়িতে পড়ানোর টিউটার। সে যাত্র লালু পরিত্রাশ পেলে, কিন্তু মনে মনে রইল ও মার পরে চটে। কারণ, উনি তার ঘাড়ে মাস্টার চাপানোর চেষ্টায় ছিলেন । সে জানত বাড়িতে মাস্টার ড়েকে আন আর পুলিশ ডেকে আনা সমান । . লালুর বাপ ধনী গৃহস্থ। বছর কয়েক হলো পুরানো বাড়ি ভেঙ্গে তেতাল, বাড়ি করেচেন ; সেই অবধি লালুর মায়ের আশা গুরুদেবকে এ-বাড়িতে এনে তার পায়ের ধূলো নেন। কিন্তু তিনি বৃদ্ধ ফরিদপুর থেকে এতদূরে আসতে রাজি হন না, কিন্তু এইবার সেই স্বযোগ ঘটেচে। স্থতির স্বৰ্য্যগ্রহণ-উপলক্ষে কাশী এলেচেন, সেখান থেকে লিখে পাঠিয়েছেন—ফেরবার পথে নারাণীকে আশীৰ্ব্বাদ করে যাবেন । লালুর মার আনন্দ ধরে না—উভোগ-আয়োজমে ব্যস্ত—এতদিনে মনস্কামনা সিদ্ধ হবে, গুরুদেবের পায়ের ধূলো পড়বে। বাড়িট পবিত্র হয়ে যাবে। নীচের বড় ঘরটা থেকে আসবাবপত্র সরামে হলো, নতুন ফিতের খাট, নতুন শষ্য তৈরী হয়ে এলে,—গুরুদেব শোবেন। এই ঘরেরই এক কোণে র্তার পূজো BBBB BBBS BBBS BCC BBBBB BBBSBDD BTDSBBB DD DD DDS ३१४