পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৩১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


विछिद्र ब्रफ़नांशली একটুখানি অবিনয়ের অপবাদ নিয়ে বলতে হচ্ছে, বুড়ো হলেও চিরদিনের অভ্যাসে এ চোখের দৃষ্টি আমার আজও একেবারে ঝাপসা হয়ে যায়নি। যা যা দেখছি, ( অস্ততঃ এই হাওড়া জেলায় যা দেখেছি) তা নিছক এই ভিক্ষার চাওয়া, দাম না দিয়ে চাওয়া, ফাকি দিয়ে চাওয়া। মানুষের কাজ-কৰ্ম্ম, লোক-লৌকিকতা, জাহার-বিহার, আমোদ-আহলাদ, সৰ্ব্বপ্রকারের সুখ-সুবিধের কোথাও যেন কোন ক্রটি না ঘটে, পান থেকে একবিন্দু চুণ পৰ্য্যন্ত না খসতে পায়,—তার পরে স্বরাজ বল, স্বাধীনতা বল, চরকা বল, খন্দর বল, মায় ইংরাজকে ভারত-সমূদ্র উত্তীর্ণ করে দিয়ে আসা পৰ্য্যন্ত বল, যা হয় তা হোক, কোন আপত্তি নেই। আপত্তি তাদের না থাকতে পারে, কিন্তু ইংরাজের আছে । শতকরা পচানব্বই জন লোকের এই হাস্তাম্পদ চাওয়াটাকে সে যদি হেসে উড়িয়ে দিয়ে বলে, ভারতবাসী স্বরাজ চায় না,—সে কি এত বড়ই মিথ্যা কথা বলে ? ষে ইংরেজ পৃথিবীব্যাপী রাজত্ব বিস্তার করেছে দেশের জন্ত প্রাণ দিতে যে এক নিমেষ দ্বিধা করে না, যে স্বাধীনতার স্বরূপ জানে, এবং পরাধীনতার লোহার শিকল মজবুত করে তৈরী করবার কৌশল যার চেয়ে বেশী কেউ জানে না,—তাকে কি কেবল ফাকি দিয়ে, চোখ রাজিয়ে, গলায় এবং কলমে গালিগালাজ করে, তার ক্রটি ও বিচ্যুতির অজস্র প্রমাণ ছাপার অক্ষরে সংগ্রহ করে, তাকে লজ্জা দিয়েই এতবড বস্তু পাওয়া যাবে ? এ প্রশ্ন ত সকল তর্কের অতীত করে প্রমাণিত হয়ে গেছে, এই লজ্জাকর বাক্যের সাধনায় কেবল লজ্জাই বেড়ে উঠবে, সিদ্ধিলাভ কদাচ ঘটবে না। আত্মবঞ্চনা অনেক করা গেছে, আর তাতে উদ্যম নেই। জড়ের মত নিশ্চল হয়ে জন্মগত অধিকারের দাবী জানাতেও আর যেমন আমার স্বর ফোটে না, পরের মুখেও তত্ত্বকথা শোনবার ধৈর্য্য আর আমার নেই। আমি নিশ্চয় জানি, স্বাধীনতার জন্মগত অধিকার যদি কারও থাকে, ত সে মকুন্তত্বের, মানুষের নয় । অন্ধকারের মাঝে আলোকের জন্মগত অধিকার অাছে দীপ-শিখার, দীপের নয় ; নিবানো প্রদীপের এই দাবী তুলে হাঙ্গামা করতে যাওয়া শুধু অনৰ্থক নয়, অপরাধ-সকল দাবী-দাওয়া উত্থাপনের আগে এ-কথা ভুলে গেলে, কেবল ইংরাজ নয়, পৃথিবীশুদ্ধ লোক আমোদ অনুভব করবে। মহাত্মাজী আজ কারাগারে । তার কারাবাসের প্রথমদিনে মারামারি কাটাকাটি বেধে গেল না, সমস্ত ভারতবর্ষ স্তব্ধ হয়ে রইল। দেশের লোকে সগৰ্ব্বে বললে, এ শুধু মহাত্মাঙ্গীর শিক্ষার ফল। Anglo-Indian কাগজওয়ালারা ৰেসে জবাব দিলে, এ শুধু নিছক indifference। আমার কিন্তু এ বিবাদে কোন পক্ষকেই প্রতিবাদ Vos \o