পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৩৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


चब्रांज-नांथनांब्र नांद्रौ অনুরোধ করায় ফল হয় বলেও যেমন আমার ভরসা হয় না, ষে বরের বাপ কস্তাদারীর কান মুচ ড়ে টাকা আদায়ের আশা রাখে, তাকেও দাতাকৰ্ণ হতে বলায় লাভ হবে বিশ্বাস করিনে। তার পায়ে ধরেও না, তাকে দাত থি’চিয়েও না । আসল প্রতিকার মেয়ের বাপের হাতে, যে টাকা দেবে তার হাতে । অধিকাংশ কন্যাদায়-গ্রস্তই আমার কথা বোঝে না, কিন্তু কেউ কেউ বোঝেন। তারা মুখখানি মলিন করে বলেন,—সে কি করে হবে মশাই, সমাজ রয়েছে যে ! সমস্ত মেয়ের বাপ এ কথা বলেন ত আমিও বলতে পারি, কিন্তু একা ত পারিনে। কথাট। র্তার বিচক্ষণের মত শুনতে হয় বটে, আসল গলদও এইখানে। কারণ পৃথিবীতে কোন সংস্কারই কখনও দল বেঁধে হয় না। একাকীই দাড়াতে হয়। এর দুঃখ আছে। কিন্তু এই স্বেচ্ছাকৃত একাকীত্বের দুঃখ একদিন সঙ্ঘবদ্ধ হয়ে বহুর কল্যাণকর হয় । মেয়েকে যে মানুষ বলে নেয়, কেবল মেয়ে বলে, দায় বলে, তার বলে নেয় না,.লে-ই কেবল এর দুঃখ বহিতে পারে, অপরে পারে না । আর কেবল নেওয়াই নয়, মেয়েমাস্থ্যকে মাস্থ্য করার ভারও তারই উপরে, এখানেই পিতৃত্বের সত্যকার গৌরব। এ-সব কথা আমি শুধু বলতে হয় বলেই বলছিনে ; সভায় দাড়িয়ে মনুষ্যত্বের আদর্শের অভিমান নিয়েও প্রকাশ করছিনে, আজ আমি নিতাস্ত দাঁয়ে ঠেকেই এ-ৰথ৷ বলছি । আজ যারা স্বরাজ পাবার জন্যে মাথা খুঁড়ে মরছেন - আমিও তাদের একজন, কিন্তু আমার অস্তুর্যামী কিছুতেই আমাকে ভরসা দিচ্ছে না। কোথায় কোন অলক্ষ্যে থেকে যেন প্রতি মুহূৰ্ত্তেই আভাস দিচ্ছেন এ হবার নয়। যে চেষ্টায়, যে আয়োজনে দেশের মেয়েদের যোগ নেই, সহানুভূতি নেই, এই সত্য উপলব্ধি করবার কোন জ্ঞান, কোন শিক্ষা, কোন সাহস আজ পর্য্যস্ত ৰাদের দিইনি তাদের কেবল গৃহের অবরোধে বসিয়ে, শুদ্ধমাত্র চরকা কাটতে বাধ্য করেই এতবড় বস্তু লাভ করা যাবে না । মেয়েমানুষকে আমরা কেবল মেয়ে করেই রেখেছি, মানুষ হতে দিইনি, স্বরাজের আগে তার প্রায়শ্চিত্ত দেশের হওয়া চাই-ই । অভ্যস্ত স্বার্থের খাতিরে যে দেশ যেদিন থেকে কেবল তার সতীত্বটাকেই বড় করে দেখচে, তার মনুষ্যত্বের কোন খেয়াল করেনি, তার দেন। আগে তাকে শেষ করতেই হবে । এইখানে একট। আপত্তি উঠতে পারে যে, নারীর পক্ষে সতীত্ব জিনিসটা তুচ্ছও নয়, এবং দেশের লোক তাদের মা-বোন-মেয়েকে সাধ করে যে ছোট করে রাখতে চেয়েছে তাও সম্ভব নয়। সতীত্বকে আমিও তুচ্ছ বলিনে, কিন্তু একেই তার নারীজীবনের চরম ও পরম শ্রেঃ জ্ঞান করাকেও কুসংস্কার মনে করি। কারণ, মামুষের মানুষ হবার যে স্বাভাবিক এবং সত্যকার দাবী, একে ফাকি দিয়ে, ষে কেউ যে কোন తిఇt