পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
ষোড়শী

 শিরোমণি। (সঙ্গে সঙ্গে দাঁড়াইয়া উঠিয়া) না তারাদাস, থাক। ওর কথা আপনার মেয়ে হয়ত বিশ্বাস করবে না রায়মশাই। ও-ই বলুক। চণ্ডীর দিকে মুখ করে ও-ই নিজের মায়ের কথা নিজে বলে যাক। কি বল চাটুয্যে? তুমি কি বল হে যোগেন ভট্টচায? কেমন? ও-ই নিজে বলুক।

[ ষোড়শীর মুখ বিবর্ণ হইয়া গেল। ]

 হৈম। আপনার। ওঁর বিচার করতে চান নিজেরাই করুন, কিন্তু ওঁর মায়ের কথা ওঁর নিজের মুখ দিয়ে কবুল করিয়া নেবেন, অতবড় অন্যায় আমি কোনমতে হতে দেব না। (ষোড়শীর প্রতি) চলুন আপনি আমার সঙ্গে মন্দিরের মধ্যে—

 ষোড়শী। না বোন, আমি পুজো করিনে, যিনি এ-কাজ নিত্য করেন তিনিই করুন, আমি কেবল এইখানে দাড়িয়ে তোমার ছেলেকে আশীৰ্ব্বাদ করি, সে যেন দীর্ঘজীবী হয়, নীরোগ হয়, মানুষ হয়! (পূজারীর প্রতি) কিন্তু-ছোটঠাকুরমশাই, তুমি ইতস্তত: করচ কিসের জন্য? আমার আদেশ রইল দেবীর পূজা যথারীতি সেরে তুমি নিজের প্রাপ্য নিয়ো। বাকী মন্দিরের ভাঁড়ারে বন্ধ করে চাবি আমাকে পাঠিয়ে দিয়ে। (হৈমের প্রতি) আমি আবার আশীৰ্ব্বাদ করে যাচ্ছি, এতেই তোমার ছেলের সর্বাঙ্গীণ কল্যাণ হবে।

ষোড়শী প্রাঙ্গণ হইতে নিষ্ক্রান্ত হইয়া গেল এবং পুরোহিত পূজার জন্য মন্দিরের অভ্যন্তরে প্রবেশ করিলেন ]
 

 জনাৰ্দ্দন। (নিৰ্ম্মল ও হৈমর প্রতি) যাও মা, তোমরাও পূজারী ঠাকুরের সঙ্গে যাও—পূজোটি যাতে স্বসম্পন্ন হয় দেখো গে।

[নিৰ্ম্মল ও হৈম মন্দিরের অভ্যন্তরে প্রবেশ করিল। ]

 জনাৰ্দ্দন। যাক বাঁচা গেছে শিরোমণিমশায়, ষোড়শী আপনিই চলে গেল। ছড়ি জিদ করে যে আমার নাতির মানস-পূজাটি পণ্ড করে দিলে না এই ঢের।

 শিরোমণি। এ যে হতেই হবে ভায়া, মা মহামায়ার মায়া কি কেউ রোধ করতে পারে? এ যে ওঁরই ইচ্ছে। (এই বলিয়া তিনি যুক্তকরে মন্দিরের উদ্দেশে প্রণাম করিলেন।)

 যোগেন ভটচায। (গলা বাড়াইয়া দেখিয়া) অ্যাঁ এ যে স্বয়ং হুজুর আসচেন।

[ সকলেই ত্রস্ত এবং চকিত হইয়া উঠিল, জীবানন্দ ও তাহার পশ্চাতে কয়েকজন পাইক ও ভূত্য প্রভৃতি প্রবেশ করিল ]

 শিরোমণি ও জনাৰ্দ্দন। আসুন, আসুন, আসুন।

[ কেহ নমস্কার করিল, অনেকেই প্রণাম করিল। ]
৩১