পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৃতীয় অঙ্ক প্রথম দৃশ্য নাটমন্দির [ চণ্ডীর প্রাঙ্গণস্থিত নাটমন্দিরের একাংশ । সময়-অপরাহু । উপস্থিত— শিরোমণি, জনাৰ্দ্দন রায় এবং আরও দুই-চারিজন গ্রামের ভদ্রব্যক্তি । ] শিরোমণি । ( আশীৰ্ব্বাদের ভঙ্গিতে ডান হাত তুলিয়া জনাৰ্দ্দনের প্রতি) আশীৰ্ব্বাদ করি দীর্ঘজীবী হও, ভায়া, সংসারে এসে বুদ্ধি ধরেছিলে বটে। জনাৰ্দ্দন। (হেঁট হইয়া পদধূলি লইয়া) আজ এই নিয়ে নিৰ্ম্মলকে দুটাে তিরস্কার করতে হ’লো শিরোমণিমশাই, মনটা তেমন ভালো নেই। শিরোমণি । না থাকবারই কথা । কিন্তু এ একপ্রকার ভালই হ’লো ভায়া। এখন বাবাজীর চৈতন্যোদয় হবে যে, শ্বশুর এবং পিতৃব্যস্থানীয়দের বিরুদ্ধাচারণ করায় প্রত্যবায় আছে । আর, এ যে হতেই হবে । সৰ্ব্বমঙ্গলময়ী চণ্ডীমাতার ইচ্ছা কি না। প্রথম ভদ্রলোক । সমস্তই মায়ের ইচ্ছা । তা নইলে কি ষোড়শী ভৈরবী বিনা বাক্য ব্যয়ে চলে যেতে চায় ! শিরোমণি । নিঃসন্দেহ। মন্দিরের চাবিটা ত পূজারীর কাছ থেকে কৌশলে আদায় হয়েচে, কিন্তু আসল চাবিটা শুনচি নাকি গিয়ে পড়েচে জমিদারের হাতে। ব্যাট পাড় মাতাল, দেখো ভায়া, শেষকালে মায়ের সিন্দুকের সোনারূপো না চুকে স্বায় তড়ির সিন্দুকে। পাপের আর অবধি থাকবে না। জনাৰ্দ্দন । ঐটে খেয়াল করা হয়নি । শিরোমণি। না, এখন সহজে দিলে হয়। দশদিন পরে হয়ত বলে বসবে, কই, কিছুই ত সিন্দুকে ছিল না! কিন্তু আমরা সবাই জানি ভায়া, ষোড়শী আর যাই কেন না করুক, মায়ের সম্পত্তি অপহরণ করবে না—একটি পাই-পয়সা না। : [ অনেকেই এ-কথা স্বীকার করিল। ] দ্বিতীয় ভদ্রলোক । এর চেয়ে বরঞ্চ সে-ই ছিল ভালো । শিরোমণি । চাবিটা অবিলম্বে উদ্ধার করা চাই। ዓ e