পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎসাহিত্য-সংগ্ৰহ ষোড়শী। চল বাবা, যাচ্চি। (গাড়োয়ান প্রস্থান কৰিল। ষোড়শী পুনরায় জীবানন্দকে প্রণাম করিয়া) আমি চললাম। জীবানন্দ ৷ এখনি ? এত রাত্রে ? ষোড়শী। প্রজারা জানে আমি ভোরবেলায় যাত্রা করব, তারা এসে পড়বার পূর্বেই আমার বিদায় হওয়া চাই। - - ( প্রস্থান ) জীবানন্দ ( একাকী অন্ধকারের মধ্যে দাড়াইয়া) অলকা ! অলকা ! একদিন তোমার মা আমার হাতে তোমাকে দিয়েছিলেন ; তবু তোমাকে পেলাম না ; কিন্তু সেদিন আমাকে যদি কেউ তোমার হাতে সঁপে দিতেন, আজ বোধ হয় তুমি অন্ধকারে আমাকে এমন করে ফেলে যেতে পারতে না। [ বাহির হইতে গরুর গাড়ি চালানোর শব্দ শুনা যাইতে লাগিল । ] চতুর্থ অঙ্ক अथम श्]ि (জমিদারের শান্তিকুর তিন-চার দিন হইল ভস্মীভূত হইয়াছে। তয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের বহু চিহ্ন তখনও বিদ্যমান। সবই পুড়িয়াছে, মাত্র তৃত্যদের খান-দুই ঘর বৃক্ষ পাইয়াছে। ইহার মধ্যেই জীবানন্দ আশ্ৰয় লইয়াছেন। সম্মুখের খোলা জানালা দিয়া বারুই নদের জল দেখা যাইতেছে ; প্রভাত-বেলায় সেইদিকে চোখ মেলিয়া জীবানন্দ নিশৰে বসিয়াছিলেন। মুখে চাঞ্চল্য বা উত্তেজনার কোন প্রকাশ নাই, শুধু সারারাত্রি ধরিয়া উৎকট রোগ-ভোগের একটা অবসর মান ছায় তাহার সৰ্ব্বদেহে পরিব্যাপ্ত হইয়া আছে । ) - ゲ8