পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বাদশ সম্ভার).djvu/৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রকৃতিস্থ করিয়া গলির মোড়ে মুদির দোকানে আসিয়া উপস্থিত হইল। দোকানী অনেকদিনের, এ-অঞ্চলের সকল ভদ্রগৃহেই সে মাল যোগায়। গিয়া ডাকিল, নবদ্বীপ, কাকাবাবুর বাড়ি ভাড়া কি-রকম ? নবদ্বীপ তাহাকে ভিতরে আনিয়া জিজ্ঞাসা করিল, আপনি কি কিছু জানেন না রাখালবাবু ? •. t না, আমি এখানে ছিলাম না । নবদ্বীপ কহিল, দেনার জন্য বাবু বাড়িটা বিক্রী করে দিলেন যে। বাড়ি বিক্রী করে দিলেন । কিন্তু তারা সব কোথায় ? গিল্পী নিজের মেয়ে নিয়ে গেছেন ভায়ের বাড়ি। ব্রজবাবু রেণুকে নিয়ে বাসা ভাড়া করেচেন । বাসাটা চেনো নবদ্বীপ ? চিনি, বলিয়া সে হাত দিয়া দেখাইয়া কহিল, এই সোজা গিয়ে বঁ-হাতি গলিটার দুখানা বাড়ির পরেই সতেরো নম্বরের বাড়ি । সতেরো নম্বরে আসিয়া রাখাল দরজায় কড়া নাড়িল, দাসী খুলিয়া দিয়া তাহাকে দেখিয়াই কাদিয়া ফেলিল। রাখাল জিজ্ঞাসা করিল, ফটিকের মা, কাকাবাবু কোথায় ? ওপরে রান্না করচেন । বামুন নেই ? না ? চাকর ? মধু আছে, সে গেছে ওষুধ আনতে। ওষুধ কেন ? দিদিমণির জর, ডাক্তার দেখচে । রাখাল কহিল, জরের অপরাধ নেই। কবে এখানে আনা হোলো ? দাসী বলিল, চারদিন। চার দিনই জরে পড়ে। ভিজা সঁ্যাত-সেঁতে উঠানময় জিনিসপত্র ছড়ানো, সিড়িটা ভাঙা, রাখাল উপরে উঠিয়া দেখিল সামনের বারান্দার এককোণে লোহার উকুন জালিয়া ব্ৰজবাবু গলদঘৰ্ম্ম । সাগু নামিয়াছে, রান্নাও প্রায় শেষ হইয়াছে, কিন্তু হাত পুড়িয়াছে, তরকারি পুড়িয়াছে, ভাত ধরিয়া চোয়া গন্ধ উঠিয়াছে। রাখালকে দেখিয়া ব্ৰজবাবু লজ্জা ঢাকিতে বলিয়া উঠিলেন, এই দ্যাথো রাজু, ফটিকের মার কাগু | উমুনে এত কয়লা ঢেলেছে যে আঁচটা আন্দাজ করতে পারলাম না। ফ্যানটা যেন—একটু গন্ধ মনে হচ্ছে, না ? রাখাল কহিল, তা হোক। আপনি উঠুন তো কাকাবাবু, বেলা বারোটা বেজে @@