পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বাদশ সম্ভার).djvu/৮৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


अब्र६-नांझिडा-नर6यंझ পরদিন বেলা যখন দশটা, অনেক দূরে গাড়ি রাখিয়া দরওয়ানের পিছনে পিছনে সবিতা সতেরো নম্বর বাড়ির দ্বারে দাড়াইলেন। ফটিকের মা বাড়িতে যাইতেছিল, থমকিয়া দাড়াইয়া জিজ্ঞাসা করিল, কে আপনি ? তুমি কে মা ? আমি ফাটকের মা। এ-বাড়ির অনেকদিনের ঝি । কোথায় যাচ্চো ফটিকের মা ? দাসী হাতের বাটিটা দেখাইয়া কছিল, দোকানে তেল আনতে। কর্তার পা লেগে হঠাৎ তেলটুকু পড়ে গেলো, তাই যাচ্চি আবার আনতে । বামুন আসেনি বুঝি ? না মা, এখনো আসেনি। শুনচি নাকি কাল আসবে। আজো কর্তাই রাধচেন । রাজু বাড়ি নেই বুঝি ? র্তাকে চেনেন ? না মা, তিনি বাডি নেই, ছেলে পড়াতে গেছেন । এলেন বলে। আর রেণু কেমন আছে ফটিকের মা ? তেমনি, কি জানি কেন জরটা ছাড়চে না মা, সকলের বড় ভাবনা হয়েচে । কে দেখচে ? আমাদের বিনোদ ডাক্তার। এখুনি আসবেন তিনি। আপনি কে মা ? আমি এদের গায়ের বোঁ ফটিকের মা, খুব দূর-সম্পর্কের আত্মীয়। কলকাতায় থাকি, শুনতে পেলুম রেণুর অসুখ, তাই খবর নিতে এলুম। কর্তা আমাকে জানেন। র্তাকে খবর দিয়ে আসবো কি ? না, দরকার নেই ফটিকের মা, আমি নিজেই যাচ্চি ওপরে। তুমি তেল নিয়ে এসো গে । দরওয়ান দাড়াইয়া ছিল, তাহাকে কহিলেন, তুমি মোড়ে গিয়ে দাড়াও গে মহাদেও, আমার সময় হলে তোমাকে ডেকে পাঠাবো, গাড়িটা যেন সেইখানেই দাড়িয়ে থাকে । বহুৎ আচ্ছা মাইজি, বলিয়া মহাদেও চলিয়া গেল । সবিতা উপরে উঠিয়া বারান্দায় যে দিকটায় কর্তা রান্নার ব্যাপারে ব্যতিব্যস্ত সেখানে গিয়া দাড়াইলেন। পায়ের শব্দ কৰ্ত্তার কানে গেল, কিন্তু ফিরিয়া দেখিবার ফুরসৎ নাই, কহিলেন, তেল আনলে? জলটা ফুটে উঠেছে ফটিকের মা, জালুপটোল একসঙ্গে চড়াবো, না পটোলটা আগে সেদ্ধ করে নোবো ? সবিতা কছিলেন, একসঙ্গেই দাও মেজকর্তা, যা হোক একটা হবেই। ব্ৰজবাবু ফিরিয়া চাহিয়া কহিলেন, নতুন-বোঁ । কখন এলে? বোলো। না না,