পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বাদশ সম্ভার).djvu/৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


अंग्नर-नांहिड-जर्4इ সবিতা উত্ত্ব ছিলেন, আমি স্টা করিনি মোক লভিাই বলছি, কিছুতে দোর খুলবো না যতক্ষণ না জবাব দেবে। ব্ৰজবাবু অধিকতর ভীত হইয়া উঠিলেন, বলিলেন, ঠাট্ট না হয়তো এ তোমার পাগলামি । পাগলামির কি কোন জবাব আছে ? জবাব না থাকে তো থাকো পাগলের সঙ্গে একঘরে বন্ধ। দোর খুলবো না। লোকে বলবে কি ? তাদের যা ইচ্চে বলুক । ব্ৰজবাব কছিলেন, তালো বিপদ জোর করে থাকার কথা কেউ শুনেচে কখনো জুনিয়ায় ? তা হলে তো আইন-কাক্তন বিচার-আচার থাকে না, জোর করে যার যা খুশি তাই করতে পারে সংসারে ? সবিত কহিলেন, পারেই তো। তুমি কি করবে বলে না ? এখানে থাকবে, নিজের বাড়িতেও যাবে না ? না। নিজের বাডি অামার এই, যেখানে স্বামী আছে, সন্তান আছে। এতদিন পরের বাড়িতে ছিলুম, আর সেখানে যাবে না। এখানে থাকবে কোথায় ? নীচে এতগুলো ঘর পড়ে আছে তার একটাতে থাকবো । লোকের কাছে দাসী বলে আমার পরিচয় দিও- তোমার মিথ্যে বলাও হবে না । তুমি ক্ষেপেচে নতুন-বোঁ, এ কখনো পারি ? এ পারবে না, কিন্তু ঢের বেশি শক্ত কাজ আমাকে দূর করা । সে পারবে কি করে ? আমি কিছুতে যাবো না মেজকর্তা, তোমাকে নিশ্চয় বলে দিলুম। পাগল ! পাগল ! .سي পাগল কিসে? জোর করচি বলে ? তোমার ওপর করবো না তো সংসারে জোর করবে। কার ওপর ? অার জোরের পরীক্ষাই যদি হয় আমার সঙ্গে তুমি পারবে না । কেন পারবো না ? কি করে পারবে ? তোমার তো আর টাকা-কড়ি নেই—গরীব হয়েচে-মামলা কয়ৰে কি দিয়ে ? ব্ৰজবাবু হাসিয়া ফেলিলেন। সবিতা জাফু পাতিয়া তাহার দুই পায়ের উপর মাখ রাখিয়া চুপ করিয়া রছিলেন। আজ তিন দিন হইল তিনি সৰ্ব্ববিষয়েই উদাসীন, বিশ্রাস্তচিত্ত অনির্দেশ শূন্ত-পথে অহঙ্কণ ক্ষ্যাপার মতো ঘূরিয়া মরিতেছেন, নিজের প্রতি লক্ষ্য করিবার মুহূৰ্ত্ত সময় পান নাই। তাহার অসংযত রুদ্ধ কেশরাশি বর্ষার দিগন্ত প্রসারিত মেঘের মতো স্বামীর পা চাকিয়া চারিদিকে ভিজা মাটির পরে ԵրՖ