পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (সপ্তম সম্ভার).djvu/২৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


जब्र९-जांश्छि7-जर७थंह কেন, কি করলে নরেন ? অার মনে কর, ওরা যদি ছুটি ভাই হ’ত, তা হলে কি কভিল ? বিন্দু বলিল, আজ তা হলে চাকর দিয়ে হাত-পা বেঁধে জলবিছুটি দিয়ে বাড়ি থেকে দূর করে দিতুম। তা ছাড়, ‘যদি’ নিয়ে কাজ হয় না দিদি— ওদের তুমি छ्ॉम्ल । অন্নপূর্ণ মনে মনে বিরক্ত হইলেন। বলিলেন ছাড়া না ছাড়া কি আমার হাতে ছোটবোঁ ? ওদের যে এনেচে, তাকে বল গে জামায় মিথ্যে গঞ্জনা দিসনে । এ-সব কথা বঠ ঠাকুরকে বলব কি করে ? যেসব করে সব কথা বলিস–তেমনি করে বল গে। বিন্দু ভাতের থালাটা ঠেলিয়া দিয়া বলিল, স্তাকা বুঝিয়ে না দিদি, আমারো সাতাশ-আঠাশ বছর বয়স হতে চলল। এ-বাড়ির দাসী-চাকর নিয়ে কথা নয়, কথা আত্মীয়-স্বজন নিয়ে—তুমি বেঁচে থাকতে এ-সব কথায় কথা বলতে গেলে বঠ ঠাকুর রাগ করবেন না ? অন্নপূর্ণ বলিলেন, রাগ নিশ্চয়ই করবেন, কিন্তু আমি বললে আমার মুখ দেখবেন না। হাজার হই আমরা পর, ওরা ভাই-বোন—সেটা দেখিস না কেন ? তা ছাড়া, আমি বুড়ো মাগী, এই তুচ্ছ কথা নিয়ে নেচে বেড়ালে লোকে পাগল বলবে नी ? বিন্দু ভাতের থালাটা হাত দিয়ে আরো খানিকটা ঠেলিয়া দিয়া গুম হইয়া বসিয়া ब्रश्छि । অন্নপূর্ণ বুঝিলেন, সে কেবল ভাণ্ডরের ভয়ে চুপ করিয়া গেল। বলিলেন, হাত তুলে বসে রইলি—ভাতের থালাটা কি অপরাধ করলে ? বিন্দু হঠাৎ নিশ্বাস ফেলিয়া বলিল, আমার খাওয়া হয়ে গেছে। অন্নপূর্ণ তাহার ভাব দেখিয়া আর জিদ করিতে সাহস করিলেন না। শুইতে গিয়া বিন্দু বিছানায় অমূল্যকে দেখিতে না পাইয়া ফিরিয়া আসিয়া বলিল, গেল কোথায় ? অন্নপূর্ণ বলিলেন, আজ দেখচি আমার বিছানায় শুয়ে ঘুমোচ্চে—যাই, তুলে हैि ८भं । না না, থাক, বলিয়া বিন্দু মুখ অন্ধকার করিয়া চলিয়া গেল। অর্ধেক রাত্রে, বিন্দুর সতর্ক নিক্স অন্নপূর্ণার ডাকে ভাঙ্গিয়া গেল। कि शिक् ि? অন্নপূর্ণ বাহির হইতে বলিলেন, দোর খুলে তোর ছেলে নে। এত বজাতি আমার বাবা এসেও সইতে পারবেন না । Ras