পাতা:শারদোৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উপননের প্রবেশ লক্ষেশ্বর কী রে, তোর প্রভু কিছু টাকা পাঠিয়ে দিলে ? অনেক পাওনা বাকি । উপনন্দ কাল রাত্রে আমার প্রভুর মৃত্যু হয়েছে । লক্ষেশ্বর মৃত্যু! মৃত্যু হলে চলবে কেন । আমার টাকাগুলোর কী হবে । উপনন্দ র্তার তো কিছুই নেই। যে বীণা বাজিয়ে উপার্জন ক’রে তোমার ঋণ শোধ করতেন সেই বাণাটি আছে মাত্র । লক্ষেশ্বর বীণাটি আছে মাত্র ! কী শুভ সংবাদটাই দিলে । উপনন্দ আমি শুভ সংবাদ দিতে আসি নি । আমি একদিন পথের ভিক্ষুক ছিলেম, তিনিই আমাকে আশ্রয় দিয়ে তার বহুকুঃখের অন্নের ভাগে আমাকে মানুষ করেছেন । তোমার কাছে দাসত্ব ক'রে আমি সেই মহাত্মার ঋণ শোধ করব । লক্ষেশ্বর বটে। তাই বুঝি তার অভাবে আমার বহু দুঃখের Y }