পাতা:শারদোৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উপনন্দ আমি তো সেইজন্যেই এখানে পুথি লিখতে এসেছি। লক্ষেশ্বর সেইজন্যেই এসেছ বটে ! আমার বয়স কত আন্দাজ করছ বাপু । আমি কি শিশু । সন্ন্যাসী কেন বাবা, তুমি কী সন্দেহ করছ । লক্ষেশ্বর কী সন্দেহ করছি। তুমি তা কিছু জান না! বড়ো সাধু ! ভণ্ড সন্ন্যাসী কোথাকার! ঠাকুরদাদা আরে কী বলিস লখা। আমার ঠাকুরকে অপমান! উপনন্দ এই রঙৰ্বাট নোড়া দিয়ে তোমার মুখ গুড়িয়ে দেব না ? টাকা হয়েছে বলে অহংকার । কাকে কী বলতে হয় জান না ! সন্ন্যাসীর পশ্চাতে লঙ্কেশ্বরের লুক্কায়ন সন্ন্যাসী আরে কর কী ঠাকুরদা, কর কী বাবা ! লক্ষেশ্বর তোমাদের চেয়ে ঢের বেশি মানুষ চেনে। যেমনি দেখেছে ৰামনি ধরা পড়ে গেছে । ভণ্ড সন্ন্যাসী যাকে বলে ! বাবা ৩২