পাতা:শিখগুরু ও শিখজাতি.pdf/১৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


: 8 শিখগুরু ও শিখজাতি রক্ষক নিযুক্ত হন। তীক্ষু-ধী-সম্পন্ন না হইয়। কেবলমাত্র নিজের কৰ্ম্মতৎপরতায় তিনি ক্রমে রণজিতের প্রতিভাজন হইয় উঠেন । ১৮১১ খৃষ্টাব্দে মহারাজ তাহাকে জমাদার উপাধি প্রদান করিয়া রাজভবনের দেউড়িওয়ালা নিযুক্ত করেন । রাজপুরীর যাবতীয় অনুষ্ঠানের ও দরবারের ব্যবস্তা-ভার তাহার উপর অপিত হইল। উচ্চ নীচ সকল ব্যক্তিকে তাহার মধ্যস্থতায় রাজার সহিত পরিচিত হইতে হইত । লাহোরে আগমনের পাঁচ বৎসর পরে কুশল শিখধৰ্ম্ম গ্রহণ করিয়াছিলেন । রাজদরবারে তাহার অসাধারণ ক্ষমতা ছিল । তুঃখের বিষয় এই যে, তিনি তাহার ক্ষমতার সাধু ব্যবহার করিতে পারেন নাই। উৎকোচগ্রহণ করিয়া তিনি অর্থশালী হইয় উঠেন। ১৮৩২ খৃষ্টাব্দে র্তাহার উপর কাশ্মীরের শাসনভার অর্পিত হইয়াছিল । তথাকার দরিদ্র প্রজাদের উপর তিনি এমন উৎপীড়ন করেন যে, একবৎসরমধ্যে সেখানে দুৰ্ভিক্ষ উপস্থিত হইল ! লাহোরদরবারেও তাহার স্বেচ্ছাচারিতা অনেককে উত্যক্ত করিয়া তুলিয়াছিল। যাহাদের বীরত্ব রণজিতকে মুগ্ধ করিয়াছিল এবং যাহারা যুদ্ধক্ষেত্রে র্তাহার প্রধান সহায় হইয়াছিলেন হরি সিংহ তাহাদের মধ্যে একজন প্রধান । যেমন সাহসিকতায় তেমনি সৈদ্যপরিচালন-দক্ষতায় তিনি অপর সকল সেনাপতিকে অতিক্রম করিয়াছিলেন । ১৮১৮ খৃষ্টাব্দে তিনি মুলতান অধিকার করেন ; কাশ্মীরবিজয়-কালেও তিনি সৈন্তাধ্যক্ষ ছিলেন। মহারাজ রণজিৎ র্তাহাকে কাশ্মীরের শাসনকার্য্যে নিযুক্ত করিয়া ছিলেন। যুদ্ধক্ষেত্রে তিনি যেমন নৈপুণ্য প্রকাশ করিয়াছিলেন, শাসনক্ষেত্রে তেমন পারেন নাই। অল্পকালমধ্যে হরি সিংহ প্রজাদের অশ্রদ্ধাভাজন হইয়া পড়েন । মহারাজ বাধ্য হইয় তাহাকে লাহোরে আহবান করেন। ১৮৩৭ খৃষ্টাব্দে আফগানদের সহিত এক যুদ্ধে তিনি নিহত হন ।