পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/১২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


जिंधं-सङ्ग रा जिंकक** ፃ© আত্মাও আলোকিত হইবে ; গোবিন্দ নানকের তেজোবার্য্যেয় অধিকারী হইবেন ॥** মন্থয্যের দুর্ব্যবহারের প্রতিফল দিবার জন্য কিরূপে দৈত্যগণ প্রেরিত হয় –কিরাপে পরবর্তী দেবতাগণ,-শিব ব্ৰহ্ম-বিষ্ণুমূর্তি ধারণ করিয়া আপনাদের প্রাধান্ত পুনঃপ্রতিটিও করেন ;–সে সকলই তিনি বিবৃত করিয়াছেন । সিদ্ধগণ কিরূপে ভিন্ন ভিন্ন সম্প্রদায়ের স্বাষ্ট করিয়াছিলেন ;–কিরূপে গোরক্ষনাথ ও রামানন্দ ভিন্ন ভিন্ন ধর্মনীতি প্রবর্তন করেন ; —আপন ধর্ম-প্রচারকালে মহম্মদ কিরূপে অসংখ্য শিষ্য সংগ্ৰহ করিয়াছিলেন ;—তাহা তিনি বুঝাইয়া দিয়াছেন । প্রসঙ্গত গোবিন্দ আরও বলেন,—র্তাহারা সকলেই আপনাপন কু-সংস্কার প্রবর্তিত করিয়া পৃথিবীকে পাপভারাক্রাস্ত করিয়াছেন ;–জনসাধারণ তাহারই অনুসরণ করিয়া বিপথগামী হইয়াছে। সেই সমুদায় কু-প্রথার উচ্ছেদ সাধন করিয়া বিশুদ্ধ ধর্ম স্থাপনের জন্যই তিনি অবতীর্ণ হইয়াছেন —পুণ্য প্রচার করিয়া পাপ -ধংসের নিমিত্তই মানবদেহ ধারণ করিয়াছেন । গোবিন্দ বলিলেন,— যদিও তিনি শ্রেষ্ঠ পদ প্রাপ্ত হইয়াছেন, তথাপি অপরের ন্যায় তিনিও একজন সামান্য মানব ;–ঈশ্বরের একজন আজ্ঞাবাহী ভৃত্য -স্বষ্টি-কৌশলের অত্যাশ্চর্য কার্যবলীর একজন পরিদর্শক মাত্র। যে কেহ তাহাকে ঈশ্বর-স্বরূপ কল্পনা করিয়া,অৰ্চনা করিবে, সেই ব্যক্তি আবহ ৫২। রোমের ‘দিগ্বিজয়ী বাদসাহের’ ছায়া সম্বন্ধে ‘ভারজিল’ যাহা বলিয়াছেন, এস্থলে তাহার সহিত ভারতবর্ষের এই ধর্ম সংস্কারকের ধর্মবিষয়ক প্রশ্নের তুলনা করিয়া দেখা কর্তব্য :– প্রবল প্রতাপশালী সেই সে "সিজার" । মরণের প্রতীক্ষায় প্রস্তুত এখন ॥ পৃথিবীর যে যাতনা-নাহি সহে আর । শক্তির মন্দিরে স্পৃহা মৃত্যু আলিঙ্গন। –Ænied, vi. পাঠকগণ এই বিষয়ে মিণ্টনের অভিব্যক্তিও স্মরণ করিবেন। ধর্মনিষ্ঠ গোবিন্দ মিন্টনের সেই ভাবের বিশেষ উন্নতি বিধান করিয়াছিলেন ;– 'অপুর্ণ প্রার্থনা তার, নীরব বীণার তার, স্বরগ মন্দির এবে নীরবতাময়। নাহিক সহায় তেঁহ, না আছে মধ্যস্থ কেহ, আপন বলিতে তথা কেহ নাহি রয় ।” অাপনা আপনি যেন, ধীশুখৃষ্ট কহিলেন,— ‘বিশ্বাস আমার প্রতি করহ স্থাপন ।

  • আমি সে তাহার তরে,

আত্মদেহ ত্যাগ করে, করিব জায়ার প্রেয় গৌরব-বর্ধন।' “Paradise Lost', iil,