পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[5 হীরক লাভ, —সা স্বজার সাহায্যের জন্য রণজিৎ সিংহের অঙ্গীকার, রণজিৎ সিংহের সিন্ধুনদ অভিমুখে গমন, সা স্বজার ভাগ্য বিপর্যয়, ১৮১৪ –স সুজার পরিবারবর্গের লাহোর হইতে লুধিয়ানায় পলায়ন, সা স্বজার কিষ্টোয়ারে পলায়ন, ১৮১৫-১৬ —কাশ্মীর অধিকারে স৷ স্বজার অক্ষমতা, এবং লুধিয়ানায় প্রস্থান, ১৮১৪ –কাশ্মীর অধিকারে রণজিৎ সিংহের চেষ্টা, কিন্তু তথায় পরাজিত হইয়া তাহার প্রত্যাবর্তন, ১৮১৫-১৬ ॥—পার্বত্য প্রদেশের ভিন্ন ভিন্ন নরপতিগণের এবং সিন্ধুর সন্নিকটবর্তী বহু রাজ্যের রণজিৎ সিংহের নিকট অধীনতা স্বীকার, ১৮১৮ —রণজিৎ সিং কর্তৃক মুলতান অধিকার, কাবুলের আমীর ফতে খাঁর নিধন সাধন, মামুদ আজিম কর্তৃক সা আইবুরের সিংহাসন প্রাপ্তি ঘোষণা, রণজিৎ সিংহের পেশোয়ার আক্রমণ, – জেহান দাদ থাকে পেশোয়ার অপর্ণ, রণজিৎ সিংহের কাশ্মীর আক্রমণের মন্ত্রণ, ১৮১৯ — ইংরাজদিগের সহিত তর্ক-বিতর্কে রণজিৎ সিংহের কাশ্মীর আক্রমণ কিছুকালের নিমিত্ত পরিত্যাগ, রণজিৎ সিংহ কর্তৃক কাশ্মীর অধিকার, —এবং তাহা লাহোর রাজ্যভুক্ত করণ, ১৮১১—২• —রণজিৎ সিং কর্তৃক ডেরাজাত অধিকার এবং তাহ লাহোর রাজ্যে সংযোজন, ১৮১৮–২১ – মহম্মদ আজম খার পেশোয়ার অধিকারের অভিপ্রায়, ১৮২২ –রণজিৎ সিং কর্তৃক সেই স্থানের রাজস্ব দাবীকরণ এবং রাজস্ব গ্রহণ, –কিন্তু রণজিৎ সিংহের উদ্দেশু সাধনে ইংরাজদিগের বাধা প্রদান ; ওহীদানি নামক স্থানের স্বত্ব-স্বামিত্ব লইয়া শ্বশ্রীর সহিত বিবাদ-বিসম্বাদ ; এবং তাঁহাতে ইংরাজদিগের সহিত রণজিৎ সিংহের তর্ক বিতর্ক,.১৮২৩ –শিখদিগের পেশোয়ার আক্রমণ, মোঁশেরার যুদ্ধ, পেশোয়ার অধিকার, –এবং ইয়ার মামুদ থাকে পেশোয়ার প্রদান, মহম্মদ আজীম খাঁর মৃত্যু, ১৮২০–২৪ —রনজিৎ সিংহের সিন্ধুদেশে গমন, ১৮২৪ । —কটোচের সংসার চাদের মৃত্যু, রণজিৎ সিংহের অপ্রতিহত ক্ষমতা ও প্রভূত্ব প্রতিষ্ঠা ; অধিকাংশ রাজ্য বিজয়, ১৮১৮– ২১ ॥—বিবিধ কার্যাবলী । সা স্বজ কর্তৃক শিকারপুর এবং পেশোয়ার আক্রমণ, ১৮২১ –সার স্বজার লুধিয়ানায় আগমন, সা জমান কর্তক তৎপশ্চাদমুসরণ এবং লুধিয়ানায় সা "জামানের অবস্থান, ১৮২১—২২ —নাগপুরের ভূতপূর্ব রাজা আল্পা সাহেব, সী জামানের পুত্রের সহিত আল্পা সাহেবের জল্পনা-কল্পনা, ১৮১৬—১৭ —মুরপুরের ভূতপূর্ব সামস্ত কর্তৃক ইংরাজদিগের আশ্রয় গ্রহণে রণজিৎ সিংহের মানসিক উদ্বেগ বৃদ্ধি, ১৮২০ –পঞ্জাবে পরিব্রাজক মুরক্রফট, রণজিৎ সিংহের