পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৩৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শিখ-ইতিহাস • טס\ অৰ্দ্ধেক অংশ ছত্রভঙ্গ হইয়া বিতাড়িত হইল। ইংরাজ পদাতিক এবং গোলন্দাজগণের বিপুল উদ্যমেও, দক্ষিণ পাশ্বস্থিত অবশিষ্ট শিখ-সৈন্য বিপক্ষসৈন্যকে বাধা প্রদান করিতে লাগিল। কারণ, তখনও যুদ্ধক্ষেত্রে স্থায়ী পদাতিক শিখ-সৈন্য শ্রেণীবদ্ধ ভাবে অবস্থিত ছিল ; যাহার প্রকৃত শিখ, সহজে তাহারা পরাজয় স্বীকার করিবে কেন ? এক্ষণে ইংরাজ-পক্ষে সত্বর বিশেষ উদ্যম আবশুক হইল। একদল ইউরোপীয় বল্লমধারী সৈন্য, বেতনভোগী ভারতীয় অশ্বারোহী সৈন্যের সাহায্যে—শিখ-পদাতিকগণের মধ্যে সবেগে নিপাতিত হইল। ইংরেজ যোদ্ধগণের প্রচণ্ড আক্রমণে প্রথমে শিখগণ বাধা প্রদান করিল। ইংরাজ সৈন্য স্বদেশের সম্মান-রক্ষার কথা স্মরণ করিয়া, বীরোচিত যশঃখ্যাতি অর্জনের অভিলাষে এবং ব্যক্তিগত প্রতিহিংসা-তৃষা নিবারণের জন্য, অতুল সাহসে যুদ্ধ আরম্ভ করিল। এই সঙ্কট সময়ে, গোবিন্দের বহুসংখ্যক অশিক্ষিত সৈন্য নিরুৎসাহিত হইয়া পড়িল। তথাপি শিখগণ যুদ্ধ পরিত্যাগ করিল না ; বল্লমের সম্মুখীন হইয়া তাহারা অসীম সাহসের পরিচয় প্রদান করিতে লাগিল। এইরূপে পুন:পুন: তিনবার পরাজিত হইয়া, শিখগণ ছত্রভঙ্গ হইল। ইংরাজ-পক্ষ অতি বিজ্ঞতা ও সাহসিকতার সহিত যুদ্ধ করিলেন ; তবে পরাজিত পদাতিক শিখসৈন্য অপেক্ষ, ইংরেজ পক্ষের বিজয়ী অশ্বারোহী সৈন্যের মৃতদেহে যুদ্ধক্ষেত্র পরিপূর্ণ হইল। তখন বুদীর পশ্চাদিকে পুনরায় সৈন্য সমাবেশের চেষ্ট হইল ; শিখগণ বাধা দিয়া কোনই ফললাভ করিতে পারিল না । অতঃপর শিখ-সৈন্য শতদ্রু-নদীর পরপারে বিতাড়িত হইল ; তাহাদিগের পঞ্চাশটিরও অধিক কামান ইংরাজগণ কাড়িয়া লইলেন , ইংরাজ সেনাপতি পূর্বদুঃখ বিস্তুভ হইলেন ; সৈন্যগণ অপমান এবং সমস্ত কষ্ট ভুলিয়া গেল ; ইংরাজগণের জয়োল্লাসে দিগমণ্ডল পরিপূর্ণ হইল * ss । ১৮৪৬ খৃষ্টাব্দের ৩০শে জানুয়ারী তারিখে প্রেরিত সার হ্যারি স্মিথের কাগজ পত্র, এবং ১লা c{sfİf eİfte çzifes gé İttH zştisi-va Mğ4Jı (Compare Sır Harry Smith despatch of the 30th January, and Lord Gough's despatch of the 1st February, 1846. ; পার্লামেন্টের কাগজপত্র, ১৮৪৬ –Parliamentary paper's 1846, ) এই যুদ্ধে ইংরেজ-পক্ষের ১৫১ জন সৈন্য নিহত এবং ৪৮৩ জন সৈন্য আহত হয় ; ২৭ জন সৈন্যকে খুজিয়া পাওয়া যায় না। “কলিকাতা রিভিউ পত্রের ষোড়শ সংখ্যার ৪৯৯ পৃষ্ঠায় ; (Calcutta Review, no. xvi, p. 499) জানা যায়, বাদোয়ালের যুদ্ধে পরাজিত হওয়ার পর, শিখদিগের সহিত পুনরায় যুদ্ধে প্রবৃত্ত হইবার সময়, সার হ্যারি স্মিথের কতকগুলি যুদ্ধোপকরণের আবশ্যক হইয়াছিল। সেই সুদক্ষ সেনাপতিকে উৎসাহ দানের কোনই প্রয়োজন ছিল না। যে সময়ে তাহার সাহায্যের জন্য সৈন্যদল আসিয়া পৌঁছিয়াছিল, তাহার আরও পূর্বে উপযুক্ত পরিমাণ সৈন্যদল আসিলে, আলিওয়ালের যুদ্ধ বহু পূর্বেই আরম্ভ হইতে পারিত। ইহা অব্য উল্লেখযোগ্য যে, "কলিকাতা রিভিউ' পত্রের লেখক তাহার প্রবন্ধে লর্ড গাঁফের প্রতি আপনার ন্যায়পরতার পরিচয় দেন নাই ; অথবা বিশেষ বিশেষ স্থলে সৈন্যদলের কমিলেরিয়াট' বিভাগের প্রতিও ন্যায়সঙ্গত মন্তব্য প্রকাশ করেন নাই। প্রধান সেনাপতি (Commander-in-Chelf) zwrw aré «tföraz cwta cwts ate i øst elstw ( son àl; see p. 497 ) তাহাও পুনঃপুনঃ উল্লিখিত হইয়াছে। ফিরসহরে শিখদিগের প্রতি আক্রমণে যে বিলম্ব