পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৩৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ইংরাজয়ের সহিত যুদ্ধ 39 এই যুদ্ধে-জয়লাভ ইংরাজের পক্ষে বড়ই সমায়োচিত এবং স্ববিধাজনক হইয়াছিল। নীচমনা গোলাপ সিং ইচ্ছা করিলে, তাহার কার্য-কুশলতা ও শক্তিমত্তার গুণে, বহুক্ষণ যুদ্ধ চালাইতে পারিতেন। কিন্তু তৎপরিবর্তে বিশাল ক্ষমতাসম্পন্ন ইংরাজদিগের সহিত দৃঢ়তা সহকারে যুদ্ধ করিবার জন্য পরাজিত শিখগণকে প্রথমেই তিনি ভৎসনা করিতে লাগিলেন। পরিশেষে ইংরাজ দলপতিদিগের সহিত সন্ধি স্থাপনের ব্যবস্থা করিয়া বসিলেন। ৪৬ লাহোর-কর্তৃপক্ষীয়গণের সহিত সন্ধি স্থাপন করিতে, গবর্ণর-জেনারেল অসম্মত ছিলেন না । বস্তুত, তিনি বুঝিয়াছিলেন, একবারের চেষ্টায় পঞ্জাব অধিকার করা বড়ই দুঃসাধ্য ; অধিকন্তু শিখ-সৈন্য, তাহার সৈনদল অপেক্ষ কোন অংশে নৃন ঘটিয়াছিল, প্রবন্ধ-লেখকের মতে লর্ড গাফই তজ্জন্য দোষী । বস্তুতঃ, প্রকৃত কারণ নির্দেশ, অথবা কাহার কি দোষে এরূপ ঘটিয়াছিল তাহার পরিমাণ নিরূপণ বড়ই দুরূহ। গবর্ণর-জেনারেলের ক্ষমতা এবং এবং কার্যকারিতার বিষয় সকলেই স্বীকার করিতেন ; সুতরাং তিনি আপনার গৌরবে আপনিই গৌরবান্বিত হইয়াছিলেন। এবং তাহার পক্ষ সমর্থনের জন্য র্তাহার কোন পুরাতন বন্ধুর ক্রট স্বীকারের আবশ্যক হয় নাই । ‘কমিসরিয়াট" বিভাগ সম্বন্ধে ( s৮৮ পৃষ্টায়-p. 488 ) এইরূপ কথিত হয়, ছয় সপ্তাহের মধ্যে যে সকল রসদ সরবরাহের কথা ছিল, ম্যাজর ব্রডফুট, ছয় দিনে তাঁহা সংগ্ৰহ করিয়াছিলেন। ‘কমিসরিয়ট' বিভাগ কেবল অর্থ ব্যয় করিতে পারিতেন ; চুক্তিপত্র অনুসারে দ্রব্যাদি ক্রয়ের ব্যবস্থা করিতে পারিতেন ; কিংবা প্রকাশ্য হাট-বাজারে দ্রব্যাদি খরিদ করিতে সক্ষম হইতেন। কিন্তু ম্যাজর ব্রডফুট, আশ্রিত সামস্তগণের নিকট হইতে আবশ্যকীয় দ্রব্যাদি আদেশমাত্র অবিলম্বে প্রাপ্ত হইয়াছিলেন। আশ্রিত সামস্তগণের সম্পত্তি প্রভৃতি বাজেয়াপ্ত করিয়া লইবেন বলিয়া ভয় দেখাইয়া, সেই সময়ে তিনি কার্যোদ্ধার করিয়াছিলেন। একজন সামন্ত এইরূপভাবে রসদ সরবরাহ সম্বন্ধে আপত্তি করায়, তিনি অপমানিত হন এবং তাঁহার নিকট হইতে জরিমানা আদায় করা হয় ; অপর একজন সামন্তও এই কারণে রাজ্যচ্যুত হইয়াছিলেন। এ বিষয় প্রবন্ধ লেখকের অবশ্যই জানা উচিত ছিল, কিংবা হয়তে তিনি তাহ জানিতেন। দিল্লী, সাহরাণপুর, বরেল এবং অন্যান্য স্থানের ইংরাজ ম্যাজিষ্টরগণ, তাহাদের সীমানার মধ্যে শস্য এবং শকট প্রভৃতি যদি পূর্বোত্তরূপে জোর করিয়া আক্রমণ করিবার ক্ষমত। প্রাপ্ত হইতেন, তাহা হইলে "কমিসারিয়ট" বিভাগকে কদাচ নিন্দার্থ হইতে হইত না । অধিকন্তু সমর-বিভাগের আবশ্যকমত দ্রব্যাদি সংগ্রহের জন্য, যদি সমর-বিভাগের কর্তৃপক্ষগণ আদেশ প্রাপ্ত হইতেন, অথবা স্বেচ্ছাক্রমে তাহার কার্য করিতে পারিতেন, তাহা হইলে শিখগণ শতদ্রু নদী পার হইবার পূর্বেই আক্রমণ করিবার জন্য অথচ আত্মরক্ষার জন্য, ইংরাজগণ যথোপযুক্ত দ্রব্যাদি আহরণ করিতে সমর্থ হইতেন। যাহার সামান্য সৈনিক মাত্র আর্থিক অভাব অনুভব করিবার তাহাজের কোনই কারণ ছিল না ;–একথা অনেকেই জানেন, এবং ইহা যে স্পষ্ট কথা, তাহা বলাই বাহুল্য। যুদ্ধের সম্ভাবনা অনুভব করিয়া, সৈগুদিগের জন্য যথাসময়ে উপযুক্ত যুদ্ধোপকরণ সংগ্রহ পক্ষে প্রধানতঃ লর্ড হার্ডিঞ্জই দায়ী ছিলেন। সর্বশ্রেষ্ঠ এবং অত্যধিক ক্ষমতাশালী গবর্ণ-জেনারেলের সঙ্গে সঙ্গে এই যুদ্ধ ব্যাপারে প্রধান সেনাপতিরও (Commander-in-chief) কোন কোন বিষয়ে দায়িত্ব আছে। কিন্তু সেনাপতির সে দায়িত্ব কোন কোন অংশে সীমাবদ্ধ : অবরোধের কৌশল এবং যুদ্ধের ফলাফল বিষয়েই তাহাকে দায়ী করিতে পারা যায়। ০৬। গোপনীয় পরামর্শ সমিতির নিকট ১৮৪৬ খৃষ্টাব্দের ১৯শে ফেব্রুয়ারী, গবর্ণর-জেনারেল যে পত্র cata, agte sisisies, I (Compare the Governer-General to the Secret Committee of the 19th February, 1846. )