পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৩৮৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ইংরাজদিগের সহিত যুদ্ধ Q8 S রহিলেন না। ভবিষ্যতে তাহার কখনও ইংরাজদিগকে বিপর্যস্ত না করে, তজ্জন্ত তিনি শিখদিগের মনে ভয় জন্মাইতে চেষ্টা করিলেন। তজ্জন্তই তিনি বিপাশা নদীর তীরবর্তী স্থানসমূহ অধিকতর উপযোগী বলিয়া মনে করিয়াছিলেন। শওক্রর প্রাচীন সীমানা সম্পর্কে না হইলেও, লাহোরের সম্পর্কে সে সমূদ্রায় স্থান অধিকার করা বৃটিশগবর্ণমেণ্টের পক্ষে বিশেষ প্রয়োজনীয় বলিয়া মনে হইয়াছিল। সেই উদ্দেশ্লেই গবর্ণর-জেনারেল প্রথমতঃ মনে করিয়াছিলেন, গোলাপ সিং, জাম্মুর পার্বত্য প্রদেশে স্বাধীন রাজা বলিয়া ঘোষিত হইবেন ॥৭৩ বৃটিশ-গবর্ণমেণ্ট স্বাধীন বলিয়া স্বীকার করেন, গোলাপ সিংহের পরিবারবর্গ সর্বদা সেই আশাই করিতেন । বস্তুতঃ, আশ্রিত ও অধীনস্থ পঞ্জাব গবর্ণমেণ্টের সর্বাদিসম্মত মন্ত্রী বলিয়া পরিচিত হইতে তখনও যে গোলাপ সিং অভিলাষী ছিলেন, হয়তো সে বিষয় কাহারও স্মৃতি-পথে পতিত হয় নাই।** অালিওয়ালের যুদ্ধে বৃটিশ-পক্ষের বিজয়লাভে যখন জানা গেল, শিখদিগের সম্পূর্ণ পরাজয় অবশুম্ভাবী, তখন রাজা গোলাপ সিং ইংরাজদিগের নিকট এক প্রস্তাব উত্থাপিত করেন । সমগ্র লাহোর রাজ্যের শাসনকর্তৃত্বপদে গোলাপ সিংকেই প্রতিষ্ঠিত করা হইবে -গোলাপ সিং সেই আশাতেই যে পূর্বে ইংরাজদিগের সহিত মিলিত হইয়াছিলেন, তাহাও এক্ষণে কাহারও মনে উদয় হইল না। পূর্বে পঞ্জাবের সামস্তগণ এবং জনসাধারণ ঘোর বিপজ্জালে বিজড়িত হইয়া গোলাপ সিংহকে উজীর পদ প্রদান করেন । যখন সময় অতি সঙ্কীর্ণ হইয়া আসিল, অথচ সমস্ত যুদ্ধ সামগ্ৰী আসিয়া পৌঁছিল না, তখন গবর্ণর-জেনারেল প্রমুখ ইংরাজগণ ৫৩। ১৮৪৬ খৃষ্টাব্দের ৩রা ও ১৯শে ফেব্রুয়ারী গুপ্ত মন্ত্রণা-সমিতির বরাবর গবর্ণর জেনারেলের পত্র। (Compare Governor-General to the Secret Committee.) as গোলাপ সিংহের পরিবারবর্গ বহুকালবিধি এই কল্পনা মনে মনে পোষণ করিয়া আদিতেছিলেন। ধীয়ান সিং, কর্ণেল ওয়েডকে স্থানান্তরিত করিতে বহু চেষ্টা করেন । ধীয়ান সিংহের মনে হইয়াছিল,—কর্ণেল ওয়েডের পর যে ব্যক্তি প্রতিনিধি নিযুক্ত হইবেন, তিনি ধীয়ান সিংহের পক্ষ অবলম্বন করিয়া, তাহারই মঙ্গলসাধন করিবেন ; কর্ণেল ওয়েড সেরূপ প্রকৃতির লোক ছিলেন না। যখন ধীয়ান সিং সেই ধারণার বশবর্তী হইয়া কার্যে প্রবৃত্ত হন, তখন হইতেই গোলাপ সিংহের পরিবারের এই আশা। লাহোর-মন্ত্রীর এই উভয় সংকল্পই মিঃ ক্লার্ক অবগত ছিলেন ; কিন্তু জাঙ্গুর সামন্তগণকে স্বাধীন বলিয়া স্বীকার করার প্রস্তাবই মিঃ ক্লার্ক প্রধানতঃ অধিকতর শ্রেষ্ঠ বলিয়া মনে করিতেন । নাও নিহাল সিংহের মৃত্যুর পর, সকলেই জামুরাজগণের প্রতি বিদ্বেষ ভাব প্রকাশ করিত,—সম্ভবতঃ সেই কারণেই মিঃ ক্লার্ক জালুর রাজগণের পক্ষপাতী ছিলেন। . ইংরাজগণ যদি গোলাপ সিংহকেই মন্ত্রী পদে প্রতিষ্ঠাত রাখিতে ইচ্ছা করিতেন, এবং লাল সিংহের জীবন্মৃত্যু সম্বন্ধে কোনই তথ্য না লইতেন, তাহা হইলে, সম্ভবতঃ লাহোরে বিশাল শক্তিসম্পন্ন স্বনিয়মবন্ধ গবর্ণমেন্ট পুনরায় প্রতিষ্ঠত হইতে পারিত। তাহা হইলে সম্ভবতঃ লাহোর অধিকারের এবং ১৮৪৬ খৃষ্টাব্দের সন্ধি-বন্ধনেরও কোনই প্রয়োজন হইত না।