পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৪১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৃতীক্স পরিচ্ছেদ মূলতান অধিকার Ֆե-8Ե.- ծԵ-8 թ [ মুলতানের বিবরণ –মুলতান আক্রমণের আয়োজন –সেনাপতি হুইশের ঘোষণা-প্রচার –শের সিংহের ভাব-বিপর্যায় ও ইংরেজের প্রত্যাবর্তন ;–শের সিংহের ইংরাজপক্ষ পরিত্যাগ ;—মূলরাজের সহিত শের সিংহের সম্মিলন —শের সিংহ কতৃক হাজারে নামক স্থানে নুতন শিখ-যুদ্ধের আয়োজন – প্রায় তিন মাস কাল মুলতান অবরোধ স্থগিত থাকায়, উভয়পক্ষের বলসংগ্ৰহ –ডিসেম্বর মাসে ইংরাজ কর্তৃক মুলতান পুনরাক্রমণ –২৭ দিন ব্যাপী দারুণ সংঘর্ষ —৩০শে ডিসেম্বর হঠাৎ ইংরেজের গোলার আগুনে মূলরাজের বারুদখান। ভস্মীভূত –মূলরাজের বিচার এবং নির্বাসন । ] চন্দ্রভাগা নদীর পূর্বতীরে, নদীর কিনারা হইতে তিন মাইল দূরে, মুলতান সহর অবস্থিত। নদীতে বন্যা উপস্থিত হইলে, নদীর জল সহরের নিকট পর্যন্ত বিস্তৃত হয়। মনোহর উদ্যানসমূহে এবং খজুর প্রভৃতি বিবিধ বৃক্ষশ্রেণীতে মুলতান সহর পরিবেষ্টিত। প্রখর গ্রীষ্মের উত্তাপে মুলতান সহর ইংরেজদিগের বসবাসের বড়ই অনুপযোগী। মুলতান সহর সম্বন্ধে ইংরেজগণ ব্যঙ্গ করিয়া সময়ে সময়ে একটি কবিতা উচ্চারণ করিয়া থাকেন। সেই কবিতাটির মর্ম,— ধুলা, তাপ, ভিক্ষাজীবী, আর গোরস্থান, এই চারি প্রব্যে হয় সেরা মুলতান। মুলতান অতি প্রাচীন নগর । মুলতানের উপর দিয়া কতই পরিবর্তনের বন্ত বহিয়া গিয়াছে। যে উচ্চ ভূমিখণ্ডের উপর মূলতান প্রতিষ্ঠিত, প্রাচীন কালের কত নগরের কত ধ্বংসাবশেষ সেই ভূখণ্ডে সঞ্চিত আছে, তাহার আর ইয়ত্তা নাই। মূলতানের সন্নিকটে সাদুশামের যুদ্ধে ইংরেজের যখন জয়লাভ হইল, তখন মূলতানের চতুস্পার্শ ইষ্টকপ্রাচীরে বেষ্টত ছিল। কিন্তু সে প্রাচীর স্বৰূঢ় নহে বিবেচনা করিয়া, অশেষ আয়াসে মূলরাজ তাহার উপর আর এক মৃত্তিকার প্রাচীর প্রতিষ্ঠা করিলেন। তাহার সৈন্যদল মূলতানে প্রবেশ করিলে, সেই প্রাচীর দুর্ভেদ্য দুর্গ-প্রাকারে পরিণত হইল। পূর্বে যে প্রাচীর ছিল, মূলরাজের পিতা বহু অর্থ ব্যয়ে সে প্রাচীর প্রস্তুত করিয়াছিলেন। আর একবার লাহোরের রাজস্ব বন্ধ করিয়া মুলতান স্বাধীন হইবার চেষ্টা করিয়াছিল ; সেই সময় বিপক্ষ-পক্ষের বহু আক্রমণেও ঐ প্রাচীর অক্ষুণ্ণ ছিল। কিন্তু মূলরাজ সে দৃঢ়তায়ও আস্থা স্থাপন করিতে পারিলেন না। তিনি দৃঢ়তার উপর নূতন দৃঢ়তা সম্পাদন করিলেন। এইরূপে ভারতীয় দুর্গসমূহের মধ্যে মুলতান দুর্গ সর্বাপেক্ষ দৃঢ় এবং স্বরক্ষিত হইয়া দাড়াইল। ভারতীয় শিল্পিগণের শিল্পনৈপুণ্য বলে, কিরূপ স্বৰূঢ় দুর্গ প্রস্তুত হইতে পারে,—মূলতান তাঁহারই আদর্শস্থানীয়। মুলতান দুর্গের চারি ধারে বিস্তৃত স্বগভীর পরিখা , পরিখার সম্মুখেই