পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৪২৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রামনগর এবং চিলিয়ানওয়ালার যুদ্ধ )גילס শের সিংহ চন্দ্রভাগা নদীর পশ্চিম-তীরে শিবির সন্নিবেশ করিয়া সদৰ্পে অবস্থিতি করিতে লাগিলেন। রামনগরের যুদ্ধে ইংরেজ-পক্ষ তাহাকে অণুমাত্র বিচলিত করিতে পারিল না। র্তাহার অধিনায়কত্বে এখন প্রায় পয়ত্রিশ সহস্ৰ শিখ-সৈন্য পরিচালিত হইতে লাগিল। পূর্বোক্ত সংঘর্ষে পরাজিত হওয়ায়, ব্রিটিশ পক্ষ আর সম্মুখ-সমরে সমর্থ হইলেন না। এইবার ব্রিটিশ-পক্ষ শের সিংহের বাম পার্থ হইতে আক্রমণের ব্যবস্থা করিলেন। সেনাপতি সার জোসেফ থ্যাকৃওয়েল এক্ষণে ইংরেজ-পক্ষের অশ্বারোহী সৈন্যদলের পরিচালনা করিতেছিলেন ; তিন দল অশ্বারোহী সৈন্য এবং তদুপযুক্ত কামান প্রভৃতি লইয়া তিনি নদীর দিকে ধাবমান হইলেন। ২রা ডিসেম্বর তাহার সৈন্যদল ওয়াজিরাবাদ পরিত্যাগ করিয়া শিখ-শিবিরের নিকটস্থ হইবার চেষ্টা করিল। কিন্তু শের সিংহ সে ক্ষেত্রেও র্তাহার গতিরোধ করিলেন ; অগণিত শিখ-সৈন্য, সার জোসেফের পরিচালিত সৈন্যমণ্ডলীর উপর নিপতিত হইল। এই ব্যাপারের প্রথমেই সার জোসেফ বিচলিত হইয়াছিলেন ; বিপক্ষ-পক্ষকে আক্রমণ করিবেন কি না, তদ্বিষয়ে চিন্তা, করিতেছিলেন। শিখগণকে সম্মুখ হইতে আক্রমণ করিবার জন্য র্তাহার উপর আদেশ ছিল না ; শিখগণ প্রত্যাবৃত্ত হইবার সময়, তাহাদিগকে পশ্চাৎ হইতে আক্রমণ করাই র্তাহার উদ্বেগু ছিল। প্রথমে সেই অভিপ্রায়েই তিনি সৈন্যগণকে থামাইয়া রাখিয়াছিলেন। শিখগণ তাঁহাতে মনে করিল, ইংরেজ-পক্ষ ভয় পাইয়াছে। সুতরাং তাহারা যথেচ্ছভাবে গোলা চালাইতে আরম্ভ করিল। ইংরেজ শিবির হইতে র্তাহার কোন প্রত্যুত্তর আসিল না; মৃতরাং শিখগণের পূর্ববিশ্বাস দৃঢ়বদ্ধমূল হইল। তখন জয়লাভ হইল মনে করিয়া, শিখগণ অগ্রসর হইতে লাগিল। এই সময়েই ইংরেজ-পক্ষের গোলন্দাজগণ কামান দাগিলেন। সম্মুখের দিক হইতে লর্ড গাফ, ভীষণ গোলা বর্ষণ আরম্ভ করিলেন। পাশ্ব দিয়া জোসেফ থ্যাকওয়েলের সৈন্যদল এবং ব্রিগেডিয়ার গডবীর পরিচালিত পদাতিক সৈন্যদল শের সিংহের শিবির আক্রমণ করিল। শিখগণের ভ্রমবিশ্বাসের ফলে দারুণ বিপত্তি উপস্থিত হইল। শের সিংহ দেখিলেন,—আর রামনগরের নিকট অবস্থান নিরাপদ নহে ; সুতরাং ওরা ডিসেম্বর রাত্রিযোগে তিনি ক্ষিপ্রকারিতার সহিত বিতস্তা-নদীর দিকে প্রত্যাবর্তন করিলেন। এতই বিশৃঙ্খলা এবং ত্বরিত গতিতে এই প্রত্যাবর্তন-ক্রিয়া সম্পন্ন হইল যে, ইংরজে পক্ষ বিশ্বাস করিলেন,—এইবার বুঝি সমস্ত শিখ-সৈন্য বিপর্যন্ত হইল। কিন্তু ইংরেজ-পক্ষ ভুল বুঝিলেন। শের সিংহ এখনও সমান বলে বলীয়ান ; উত্তরের দিকে অগ্রসর হইয়া, পিতার সহিত যোগদান করাই এখন তাহার একমাত্র অভিপ্রায়। রামনগর হইতে প্রত্যাবর্তন করিয়া, তিনি সেই উদেশু-সাধনেই অগ্রসর হইলেন। এখন তাহার সৈন্যদল বৃদ্ধি পাইল ; প্রায় চল্লিশ সহস্র সৈন্য এবং ৬২টি কামান লইয়া তিনি যুদ্ধার্থ প্রস্তুত রহিলেন। অতঃপর শের সিংহের অনুসরণে সেনাপতি লর্ড গাফ, সমস্ত সৈন্য সহ চন্দ্রভাগা নদী পার হইয়া,পশ্চিম তীরে উপনীত হইলেন। শের সিংহ যে দিকে গমন করিয়াছেন, সেই পথে উত্তরাভিমূখে লর্ড গাফের সৈন্যদল