পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৪৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আদিগ্রন্থ। Co অপর আর এক ছন্দে ২৪টা সংস্কৃত শ্লোক সংযোজিত রহিয়াছে ; সকলগুলিই অজুনের রচনা-প্রস্থত। পঞ্জাবী বা হিন্দী ভাষায় অৰ্জুনের আরও ২৩টি শ্লোক ইহাতে সন্নিবদ্ধ আছে ; সে সকলই অমৃতসরের গুণকাহিনীপূৰ্ণ। ইহাদের অব্যবহিত পরেই কবির প্রভৃতির ২৪৩টি, শেখ ফরিদের ১৩০টি এবং মজুনের উপদেশপূর্ণ আরও কতকগুলি শ্লোক, এই অংশে দেখিতে পাওয়া যায়। অত:পর শেষ পর্যস্ত, কাল এবং অন্যান্য ভাটের কতকগুলি রচনা এই অংশে স্থান পাইয়াছে ; সেগুলি অজুনের কোন কোন অংশের সহিত মিশিয়া গিয়াছে। এই 'ভোগ’ নামক অংশে যে নয় জন ভাটের রচনা দেখা যায়, তাঁহাদের নাম নিম্নে, উল্লিখিত হইল ;– ১ । ভিখা,- অমরদাসের শিষ্য। ৫ । সাল, -অজুনের শিষ্য। ২। কাল,—রামদাসের শিষ্য। ৬ । নীল । ৩ । কাল সাহর । ৭ । মথুরা । ৪ । জলাপ,—অজুনের শিষ্য। b~ | २ठ । ১ । কীরিত বা কীর্তি। এই সকল নাম কল্পনাপ্রস্থত, হয়তো বা কৃত্রিম ৷ ‘ গুরু বিলাস’ নামক গ্রন্থে কেবল মাত্র আট জন ভাটের নামোল্লেখ আছে। বল নাম ব্যতীত অন্যান্য সকলগুলিই গ্রন্থোক্ত’ নাম হইতে সম্পূর্ণ বিভিন্ন। গ্রন্থের ক্রোড়পত্র। ৬ষ্ঠ। "ভোগ ক বাণী" ;–অথবা উপসংহারের শেষ কবিতা। এই অংশ সাত. পৃষ্ঠায় বর্ণিত। ইহার অন্তর্গত,—(১) সূচনায় “শ্লোক মেইল পইলা’ বা আদি স্ত্রীলোক বা ক্রীতদাসীর স্তোত্র নামে কতকগুলি শ্লোক অাছে। (২) মল্লার রাজার প্রতি নানকের উপদেশ । (৩) নানকের ‘রত্নমালা' অর্থাৎ জহরতের জপমালা বা ধর্মপ্রাণ মহাত্মগণের উপাসনা-পদ্ধতি ; ইহাতে ধর্মপ্রাণ মহাত্মগণের প্রকৃত বিশেষত্ব বা গুণ বর্ণিত আছে ; এবং (৪) “প্রাণ সিংলি" নামক 'পোট বা ধর্মগাথা সম্পর্কে, সিংহলের রাজা শিবনবের হাকিকাত' বা অবস্থা পরম্পরা। কথিত হয়, গোবিদের জীবদ্দশায় ভাই ভানু নামক জনৈক ব্যক্তি কর্তৃক এই শেষোক্ত অংশ বিরচিত। সাধারণতঃ শুনা যায়, ‘রত্নমালা’ প্রথমতঃ তুৰ্কী ভাষায় লিখিত হয়। কিংবা এই রত্নমাল, তুর্কী ভাষায় আদি বা মূল গ্রন্থের সার সংগ্রহ মাত্র।