পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৪৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 শিখ ইতিহাস দেখিতে পাওয়া যায় না । বাবর অত্যন্ত শিকারপ্রিয় ছিলেন ; তাহার আগমনের সময় হইতেই এই প্রদেশে হিংস্ৰ জন্তুর প্রভাব লোপ পাইয়াছে। অধুনা সেই সকল স্বদীর্ঘ প্রান্তর ভূমি ধান্ত, যব, গম, প্রভৃতি বহুমূল্য শস্তক্ষেত্র পরিশোভিত। পর্বতমালা হইতেও বহুবিধ ঔষধ, রঙ্গ এবং ফল সংগৃহীত হইতেছে। এই সমস্ত অতুচ্চ পর্বত পার্থে স্বদীর্ঘ দেবদারু-বন এবং তাম্রখনি দেখিতে পাওয়া যায়। সৈন্ধব লবণ এবং অপরিষ্কৃত লোঁহের বিস্তৃত খনি এই বিশাল পর্বত-মধ্যে নিহিত রহিয়াছে। সিন্ধুনদ ও কাশ্মীরের মধ্যবর্তী উপত্যকাগুলি অতি মনোরম এবং স্বাস্থকর ; এই জন্তই মনে হয়, আসিয়াখণ্ডে এই প্রদেশ অতুলনীয় ; সাময়িক আবহাওয়া ইউরোপীয়দিগের উপযোগী। এখানে বর্ষাকালের কঠোরতা আদৌ অস্থতৃত হয় না ; বরং তৎপরিবৰ্ত্তে নাতিশীতোষ্ণ মণ্ডলের রমণীয় বসন্তবারি প্রাণ মন মোহিত করে। শিখ অধিকৃত রাজ্যখণ্ডে নানা জাতীয় লোক বাস করিত। তাহাঁদের ভাষা, বংশ এবং ধর্ম পরস্পর বিভিন্ন ছিল । পুরাকালে ব্রাহ্মণ এবং ক্ষত্রিয়,—এই দুই জাতিই প্রকৃত সভ্য জাতি বলিয়া অবিহিত হইত। তাহাদের আবাসভূমি—সেই আৰ্য্যাবর্তেব বিস্তৃত প্রাস্তর,-দরিয়াস ও আলেকজাদারের সময় হইতে বাবর এবং নাদের সা’র সময় পৰ্য্যস্ত,—সময়ে সময়ে ‘পারসী এবং 'সিদিক' প্রভৃতি অসভ্য জাতি কর্তৃক লুষ্ঠিত হইয়া ধ্বংসপ্রাপ্ত হইয়াছে। এই বিভিন্ন আক্রমণকারীর অনেক নিদর্শন এখনও হয়ত দেখিতে পাওয়া যায় ; কিন্তু তাঁহাদেব মধ্যে আর্য্যাবর্তে মুসলমান জাতির প্রাদুর্ভাব এবং উত্তর এসিয়া-খণ্ড হইতে ভারতভূমিতে জাঠ জাতির উপনিবেশ স্থাপন,-এই দুইটাই প্রধান উল্লেখযোগ্য। ‘গ্ৰীক’দিগের গীতি" ( Getae) এবং চীনদেশীয়দিগের ‘ইউইচি’ ( Yuechi ) প্রভৃতি পৌরাণিক গল্প প্রসঙ্গে জাঠ কিম্বা ‘চন্দ্রবংশসস্তৃত ‘ষদ্ধর বংশ-পৰ্য্যায় আলোচনা করিয়া, চীন কৃষিজীবী ও গ্রীকৃদিগের সহিত তাহদের স্বতঃপ্রমাণিত সাদৃশু বিচারের আবগুক নাই ; অথবা রণজিৎ সিংহ খাদফিশ’ বংশসন্থত কিনা,—তাহাও আলোচনা করিতে চাহি না। খৃষ্টীয় ধর্মের প্রথম যুগে জার্ধ্যাবর্তে হিন্দুধর্ম এবং সভ্যতার প্রাবল্য হেতু হিংস্র অসভ্য আক্রমণকারিগণও ক্রমে স্বসভ্য হইয়াছিল ; প্রায় এক শতাব্দীর মধ্যেই ‘জাঠ’ জাতি ব্ৰাহ্মণদিগের ভাষা এবং ধর্ম গ্রহণ করিয়া ব্রাহ্মণের স্তায় আচার-ব্যবহার ও ধর্মাচরণ আরম্ভ করিয়াছিল। সিন্ধুনদের দক্ষিণ তীরস্থ জাঠ অধিবাসিগণ ইসলাম ধম গ্রহণ করে ; এবং উত্তর খণ্ডের জাঠজাতি বহুদিন ধরিয়া প্রাচীন পৌত্তলিক ধমের উপাসক ছিল । সম্প্রতি এই শেষোক্ত সম্প্রায় এক নূতন জীবন প্রাপ্ত হইয়াছে; এক্ষণে তাহার ঈশ্বরের স্বরূপত্ব এবং মানবের এক ও সমত্ব প্রচার করিতেছে ; এবং বহুদিন হিন্দু ও মুসলমান নরপতির অধীন থাকিয়া এক্ষনে তাহারা এক অসীম প্রবল রাজশক্তির প্রতিষ্ঠা করিতে সমর্থ হইয়াছে। বৌদ্ধধম SS DDDB BBBD DHHS SSLLLS HBB BBB SBBBSS SDDDSS DDD SBBB BD DDD DDS DDDS DD DDS LLLS DD DDS DDS BB BBBB BBDD DD DDS BBB BBB প্রদেশে ইহার অর্থ ভেড়ার লোম’ অথবা কেশরাশি। সিন্ধু দেশের উত্তরাংশে জাঠ (Ju) শম্বে অধুন Z C KBBBBB BBBBDS DDD DBBBBD BBBD DBS BDDDDD DDDB DD