পাতা:শেষ লীলা - প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

৩৮

দারোগার দপ্তর, ৭৮ম সংখ্যা।


খাইতে দিয়াছিলাম, তাহার অবশিষ্ট সন্দেশ এখনও আমার আলমারির ভিতর আছে। যে সকল কর্ম্মচারী আমার আলমারি অনুসন্ধান করিয়াছেন, তাঁহারা সকলেই সেই সন্দেশ দেখিয়াছেন। সেই সন্দেশ পরীক্ষা করিয়া দেখুন যে উহাতে ধূতুরা চূর্ণ আছে কি না। সিদ্ধির কাগজও, বোধহয় আমার ঘরে পড়িয়া আছে। ইহা অপেক্ষা অধিক প্রমাণ আর কি চাহেন?

 আমি। অধিক প্রমাণ আর কিছুই চাহি না; যদি তুমি রাজকুমারীকে হত্যা করিয়া, তাহার অলঙ্কারগুলি অপহরণ করিয়া থাক, তাহা হইলে সেই অপহৃত অলঙ্কারগুলি সর্ব্বসমক্ষে বাহির করিয়া দেও। তাহা হইলে বুঝিতে পারিব যে, এই হত্যা হরির দ্বারা হয় নাই, তোমার দ্বারাই এই হত্যা হইয়াছে। তখন হরিকে অব্যাহতি প্রদান করিতে আমাদিগের আর কিছু মাত্র আপত্তি থাকিবে না।

 ত্রৈলোক্য। উত্তম কথা, যদি ইহাতেও আপনারা আমার কথা বিশ্বাস না করেন, নির্দ্দোষ হরিকে ছাড়িয়া না দেন, তাহা হইলে আপনারা আমার সঙ্গে আসুন, আমি সেই সকল অপহৃত অলঙ্কার বাহির করিয়া আপনাদিগের হস্তে অর্পণ করিতেছি। তাহা হইলে হরিকে ছাড়িয়া দিতে আপনাদিগের ত আর কোনরূপ আপত্তি থাকিবে না?

 আমি। তাহা হইলে আর আমাদিগের আপত্তি থাকিবে কেন? কিন্তু তুমি অলঙ্কারগুলি কোথায় রাখিয়াছ, বল দেখি।

 ত্রৈলোক্য। কোথায় আর রাখিব? আমার ঘরেতেই আছে।

 অপরাপর কর্ম্মচারীগণ। ঘরের কোথায় আছে?

 ত্রৈলোক্য। আমার ঘরে আলমারির মধ্যেই আছে।