পাতা:শোধবোধ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রথম অঙ্ক শোধ বোধ চতুর্থ দৃপ্ত সতীশ । তোমাব উপদেশ মনে থাকবে—আমিও দেবো না ! আজি হ’তে তোমাব এখানে মুটে ভাড়া বেহাবাব মাইনে যত অল্প লাগে, সে দিকে আমাব সৰ্ব্বদাই দৃষ্টি থাকবে। (সুকুমাবীব প্রস্থান ) সেই চিঠিটা এই বেলা শেষ কবি, নইলে সময পাবো না ( চিঠি লিখতে প্রবৃত্ত ) ৷ হুরেনের প্রবেশ হবেন । দাদা, ও কি লিখ চো, কা’কে লিথ চো, বলে না ? সতাশ । যা, যা, তোব সে খববে কাজ কি, তুই খেলা কবগে যা ! হবেন । দেখি না কি লিখচো—আমি আজকাল প’ডতে পাবি । সতীশ । হবেন, তুই আমাকে বিবক্ত কবিসনে বলচি—যা তুই । হবেন । ভয়ে আকাব ভা, ল, ভাল, বযে আকণব বা, সযে আকাব সা, ভালবাসা । দাদা কি ভালবাসাব কথা লিখচে, বলে না । কঁচা পেয়ারা ? সতীশ । আঃ হবেন, অত চেচাসনে ভালবাসাব কথা আমি লিখিনি । হবেন । অ্যা, মিথ্য কথা ব’লচে । ভযে আকণব ভা, ল, ভাল, বযে আকাব সয়ে আকাব ভালবাসা । আচ্ছা, মাকে ডাকি, তাকে দেখাও । সতীশ । না, ন, মাকে ডাকতে হবে না ! লক্ষ্মীটি, তুই একটু খেলা কবৃতে যা, আমি এইটে শেষ কবি । হবেন। এটা কি দাদা ! এ যে ফুলেব তোড়া ! আমি নেবো । সতীশ । ওতে হাত দিসনে—গত দিসনে, ছিড়ে ফেলবি। হবেন । না, আমি ছিড়ে ফেলবো না, আমাকে দাও না ! সতীশ । থোকা, কাল তোকে অনেক তোড়া এনে দেবো, এটা থাকৃ। হরেন। দাদা, এটা বেশ, আমি এইটেই নেবো ! tv ]