পাতা:শ্মশানের ফুল - নরেন্দ্রকৃষ্ণ চট্টোপাধ্যায়.pdf/১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
শ্মশানের ফুল।
 

ডুবিয়াছে সে শশাঙ্ক সুনীল গগনগায়
কে বলিতে পারে উঠিবেনা সে যে পুনরায়?
কিন্তু হায়! উন্মাদক “প্রণয়িনী, প্রাণেশ্বর”
হৃদয়ের বীণা-যন্ত্রে বাজিত যে মধুস্বর;
এখনো সে চির পরিচিত, বীণার ঝঙ্কার,
বাজিছে হৃদয়ে মম ক্ষীণ প্রতিধ্বনি তার
(নিরাশায় স্তব্ধ কর্ণ) শুনিতে কি পাব আর
এ জনমে কিম্বা মরণের যবনিকা পার?
যে মুহূর্ত্তে বিদ্যুদ্দাম স্নেহে ধরিলাম গলে
ছুটিল তড়িত-স্রোত হৃদয় আকাশ তলে,
সে মুহুর্ত্ত আহা! মানসের জনম নূতন,
বিষাদের বিসর্জ্জন, সৌভাগ্যের আবাহন
অশাস্তির উৎবন্ধন, প্রণয়ের প্রাণ-পণ
উৎস উৎসবের, কামনার ক্ষীরোদ মন্থন।
জীবনের অভাব অভাব যুগল মিলন
জগতের মোহ-মন্ত্র প্রণয়ের উচ্চারণ
জগতের প্রতি পরমাণু নূতনতা মাখা
প্রকৃতির পতাকায় যুগল চরিত্র আঁকা।
শান্তির ত্রিদিব মঞ্চে সৌভাগ্যের অভিনয়
অভিনেতা প্রেম, শ্রোতা তার ঐশ্বর্য্য প্রণয়,
ছলিছে বিজলী-হার বিজলী আলোক তার
ভবিষ্য-তিমির-গর্ভ উজলিছে বার বার,

১০