পাতা:শ্যামলী - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


wo যারা চলতে বেরিয়েছিল পথে মৃত্যু পেরিয়ে আজও তারাই চলেছে যারা বাস্তু ছিল আকড়িয়ে তারা জীয়ন—ম তাদের নিঝুম বসতি বোবা সমুদ্রের বালুর ডাঙায় তাদের জগৎজোড়া প্ৰেতিস্থানে অশুচি হাওয়ায় কে তুলবে। ঘর, কে রইবে চোখ উলটিয়ে কপালে, কে জমাবে জঞ্জাল । কোন আদিকালে মানুষ এসে দাড়িয়েছে বিশ্বপথের চৌমাথায় । পাথেয় ছিল রক্তে, পাথেয় ছিল স্বপ্নে, পাথেয় ছিল পথেই । যেই একেছে নকশা, ঘর বেঁধেছে। পাকা গাঁথুনির, ছাদ তুলেছে মেঘ ঘেঁষেপরের দিন থেকে মাটির তলায় ভিত হয়েছে বাবার ; . সে বঁাধ বেঁধেছে পাথরে পাথরে, তলিয়ে গেছে বন্যার ধাক্কায় । সারারাত হিসেব করেছে স্থাবর সম্পদের, । রাতের শেষ হিসেবে বেরল সর্বনাশ । ৩াক