পাতা:শ্যামলী - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


امر “নারীর প্রসঙ্গে না-হয় চুপ করলেম হতবুদ্ধি দেবতারই মতো, কিন্তু পুরুষ ? डांद्ध७ कि उाख्वांडयांन द्भिद्मश्रण । ও নানুষটা হঠাৎ পোষ মানলে কোন মন্ত্রে।” আমি বলেছি, - “মেয়েই হোক আর পুরুষই হোক, স্পষ্ট নয় কোনো পক্ষই ; যেটুকু সুখ দেয় বা দুঃখ দেয় স্পষ্ট কেবল সেইটুকুই। প্রশ্ন কোরো না, পড়ে দেখো কী বলছে কুশল।”— কুশল বলে, “নবনী চার বছর ছিল দৃষ্টির বাইরে, যেন নেমে গেল সৃষ্টির বাইরোতেই ; ওর মাধুৰ্যটুকুই রইল মনে, আর সব-কিছু হল গৌণ । সহজ হয়েছে। ওকে সুন্দর ছাদে চিঠি লিখতে । অভাব হয়েছে, করেছি। দাবি ; ওর ভালোবাসার উপর অবাধ ভরসা। মনকে করেছে রসসিক্ত, করেছে গর্বিত । প্ৰত্যেক চিঠিতে আপন ভাষায় ভুলিয়েছি আপনারই মন । BBB DBBBED DDSDDB DDDD ওর স্মৃতির মূর্তিটিকে সাজিয়ে তুলেছে দেবীর মতো।