পাতা:শ্রীকান্ত (তৃতীয় পর্ব).djvu/৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ॐीकख-क्लर्डीन्न नई |gtశీ আছি। আমার আশায় ? তবে ডেকে পাঠাও নি কেন ? এই বলিয়া সে কাছে আসিয়া মশারির একটা ধার তুলিয়া দিয়া আমার শয্যার শিয়রে আসিয়া বসিল । বরাবরের অভ্যাসমত আমার চুলের মধ্যে তাহার দুই হাতের দশ আঙ্গুল প্রবেশ করাইয়া দিয়া বলিল, ডেকে পাঠাও নি কেন ? ডেকে পাঠালেই কি তুমি আসতে ? তোমার কত কাজ । হোক কাজ। তুমি ডাকলে না বলতে পারি এমন সাধ্যি আছে আমার ? ইহার উত্তর ছিল না। জানি, আমার আহ্বান সত্যই উপেক্ষা করিবার সাধ্য তাহার নাই। কিন্তু আজ্ঞ এই সত্যকেই সত্য বলিয়া মানিয়া লইবার সাধ্য আমার কই ? রাজলক্ষ্মী কহিল, চুপ করে রইলে যে ? ভাবচি । ভাবচো ? কি ভাবচো ? এই বলিয়া সে ধীরে ধীরে আমার কপালের উপরে তাহার মাথাটি নাস্ত করিয়া চুপি চুপি বলিল, আমার উপর রাগ করে বাড়ি থেকে চলে গিয়েছিলে যে বড় স্থ রাগ করে গিয়েছিলাম তুমি জানলে কি করে ? রাজলক্ষ্মী মাথা তুলিল না, আস্তে আস্তে বলিল, আমি রাগ করে গেলে তুমি জানতে পার না ? কহিলাম, বোধ হয় পারি। রাজলক্ষ্মী বলিল, তুমি বোধ হয় পার, কিন্তু আমি নিশ্চয় পারি, আর তোমার পারার চেয়েও ঢের বেশি মারি । চেয়ে তুমি হেরে গেলেই আমার ঢের বেশি লোকসান । কহিলাম, বণিনে ত আর ; কিন্তু বলা যে অনেকদিন বন্ধ করেচি সেই খবরটাই তুমি জান না । রাজলক্ষ্মী নীবল হইযা রহিল। পূর্বে হইলে সে আমাকে সহজে অব্যাহতি দিত না, লক্ষ কোটি প্রশ্ন করিয়া ইহাল কৈফিয়ত আদায় করিয়া ছাড়িত, কিন্তু এখন সে মৌনমুখে স্তব্ধ হইয়া রহিল। বহুক্ষপ পরে সে মুখ তুলিয়া অন্য কথা পাড়িল । জিজ্ঞাসা করিল, তোমার নাকি এর মধ্যে জুর হয়েছিল ? কোথায় ছিলে ৮ বাড়িতে আমাকে খবর পাঠালে না কেন ? খবর না পাঠাইবাব হেতু বলিলাম। একে ত গবর আনিবার লোক ছিল না, দ্বিতীয়তঃ র্যাহার কাছে থবব পাঠাইব, তিনি যে কোথায় জানিতাম না। কিন্তু কোথায় এবং নি বে ছিলাম তাহা সবিস্তারে বর্ণনা করিলাম। চক্রবর্তীগৃহিণীর নিকট আজই সকালে বিদায় লইয়া আ.সয়াছি। সেই দীনহীন গৃহস্থ পরিবারে যেভাবে আশ্রয় লাভ করিয়াছিলাম এবং যেমন করিয়া অপরিসীম দৈন্যের মধ্যেও গৃহকত্রী অজ্ঞাতকুলশীল রোগগ্রস্ত অতিথিকে পুত্রাধিক স্নেহে শুশ্ৰষা করিয়াছেন তাহ বলিতে গিয়া কৃতজ্ঞতা ও বেদনায় আমাব দুই চক্ষু জলে ভরিয়া উঠিল। রাজলক্ষ্মী হাত দিযা মুছইয়া দিয়া কহিল, যাতে তারা ঋণমুক্ত হন, কিছু টাকা পাঠিয়ে দাও না ርቆቖ ? বলিলাম, থাকলে দিতাম, কিন্তু টাক' ত আমার নেই। আমার এই সকল কথায় রাজলক্ষ্মী মর্মাম্ভিক দুঃখিত হই শু সে মনে মনে তেমনই দুঃখ পাইল, কিন্তু তাহার টাকা যে আমারও টাকা এ কথা সজোরে প্রতিপন্ন করিতে আগেকার দিনের মত আর কলহে প্রবৃত্ত হইল না, চুপ করিয়া রহিল। এই জিনিসটা তাহার নূতন দেখিলাম। আমার এই কথার উপরে ঠিক এমনি শাম্ভ নিরুত্তরে বসিয়া থাকা আমাকেও বিধিল। কিছুক্ষণ পরে সে নিশ্বাস ফেলিয়া সোঙ্গ হইয়া বসিল, যেন দীর্ঘশ্বাসের বাতাস দিয়া সে তাহার চারিদিকে ঘনায়মান বাপাটছন্ন মোহের আবরণটাকে ছিড়িয়া ফেলিতে চাহিল। ঘরের মন্দ আলোকে তাহার মুখের চেহারা ভাল দেখিতে পাইলাম না, কিন্তু যখন সে কথা কহিল, তাহার কণ্ঠস্বরের আশ্চর্য পরিবর্তন লক্ষ্য করিলাম। রাজলক্ষ্মী বলিল, বর্মী থেকে তোমার চিঠির জবাব