পাতা:শ্রীনরোত্তম চরিত - শিশিরকুমার ঘোষ.pdf/১৪

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শ্ৰীবৃন্দাবনে যাজা ।

  • লোকনাথ ও ভূগর্ল্ড ব্লাজমহল পৰ্যন্ত গমন করিলেন । সেখানে শুনিলেন যে, বৃন্দাবন যাইবার পথ খোলা নাই। হিন্দু মুসলমানে তখন সৰ্ব্বস্থানে যুদ্ধ হইতেছে, ইহাতে রাজপথ সমুদ্ৰায় বন্ধ হইয়া গিয়াছে। -"..."। কিন্তু এই সামান্য বাধায় তাহারা ফিরিবার লোক নহেন। অনেক অনুল | r ... সন্ধানের পর তাহারা বহুদেশ ঘুরিয়া বৃন্দাবনে যাইবার পরামর্শ করিলেন ।

এই মনে করিয়া ভাজপুরের পথ ধরিলেন। সেখান হইতে পূর্ণিয়া । গমন করিলেন, ও ক্ৰমে ঘুরিয়া অযোধ্যায় উপস্থিত হইলেন। সেখান হইতে লক্ষ্মেী, লক্ষ্মেী হইতে আগরায় গমন করিলেন। তাহার পর্যন্ত । শ্ৰীকৃষ্ণের জন্মস্থান গোকুলে উপস্থিত হইলেন। শ্ৰীকৃষ্ণের জন্মস্থান দর্শন / } করিয়া প্রেমানন্দে বিহ্বল হইয়া পড়িলেন। * পরে বৃন্দাবনে প্রবেশ করিলেন এবং দেখিলেন যে বৃন্দাবন জঙ্গলময় ও হিংস্ৰ জন্তুর আবাসভূমি হইয়াছে। যাহারা বৃন্দাবনবাসী তাহারা অজ্ঞ, মূর্ব ও ভক্তিহীনু কোথা কি লীলার স্থান, তাহা কিছুই বলিতে পারে না। বৃন্দাবন তখন ছারখারে গিয়াছে। মুসলমানগণের ভয়ে হিন্দুগণ র্তাহাদের দেবতা লইয়া পলায়ন করিয়াছেন। কেহ বা " । শ্ৰীবিগ্ৰহ লইয়া যাইতে পারেন নাই বলিয়া গোপনীয় স্থানে লুকাইয়া রাখিয়া গিয়াছেন। বৃন্দাবনে আছেন কেবল যমুনা, গোবৰ্দ্ধন ও স্থানটী । অর্থাৎ যাহা তাহারা লইয়া যাইতে পারেন নাই । দুই বন্ধু তখন উচ্চৈঃস্বরে রাধাকৃষ্ণ ও সখীগণকে আহবান করিতে করিতে বন-ভ্ৰমণ করিতে লাগিলেন । “হে কৃষ্ণ ! আমাদের প্রতি করুণা করা। হে রাধে ॥৫ আমরা তোমার অন্বেষণে আসিয়াছি । ... হে ললিতে ! হে বিশাখে ! / ! তোমরা কোথায়? আমরা কি তোমাদিগকে দেখিতে পাইব ? হে লীলাস্কান ! আমাদের প্রতি সদয় হওঁ৷ তোমরা সকলে কোথায়? কোথায় বংশীবািট? কোথায় নিধুবন ? কোথায় ভাণ্ডীর বন ? ܬܐ / digitized at BRCin dia. Conn