পাতা:শ্রীনরোত্তম চরিত - শিশিরকুমার ঘোষ.pdf/১৪৭

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


—ব্রািড় দুঃখ দ্বিত, আর তাহার হুঃখ অপনয়ন করিরবার নিমিত্ত ঠাকুর মহা- ? গ্ৰামন্থ ভদ্ৰলোক।  : - SS শয় এ সকল ভঙ্গী করিয়াছেন। তখন গঙ্গানারায়ণ, ব্রাহ্মণগণকে ঠাকুর ) { মহাশয়ের অগ্ৰে লইয়া গেলেন, যাইয়া ঠাকুর মহাশয়কে জানাইলেন যে, ১৯ তাহার সঙ্গীগণ উহার গ্রামস্থ ; ইহারা ব্ৰাহ্মণ, অনেকে মহা পণ্ডিতও বটেন, তাহারা কৃপা প্ৰাখী হইয়া আগমন করিয়াছেন। এই কথা বলা । হইলে, ব্ৰাহ্মণ পণ্ডিতগণ ঠাকুর মহাশয়ের চরণে লুটাইরা পড়িলেন। ঠাকুর মহাশয় তখন সরল ভাবে প্ৰতি জনকে আলিঙ্গন দান করি।-- লেন । তাহার পরে, মধুর ভাষায় বলিলেন যে, "গঙ্গানারায়ণ এখন। গৃহে কিছু কাল থাকিবেন। তাহার নিকট তোমরা ভক্তি-গ্ৰন্থ পাঠ, কর । পরে যাহার ইচ্ছা হয়, তাহার সহিত খেতরি গমন করিবে।” . পরে ঠাকুর মহাশয় খেতরি প্রত্যাগমন করিলেন। त्रिकानांद्राश्टुभः গ্রামে বড় দুঃখ ছিল। গ্রামস্থ লোক তাহাদিগকে, বিশেষতঃ তাহার । ঘরণী ও কস্থাকে, বড় উৎপীড়ন করিত। একে তাহাকে সমাজচ্যুত । করিয়া রাখিয়াছে, তাহার উপর ঠাট্রা দ্বেষ মিশাইয়া নানা উপায়ে গ্রামস্থ cलादक डॉक्षत्रिक बबम निड। এখন ঠাকুর মহাশয়ের রূপায় সমস্ত । দুৱীভূত হইল। ܓܠ . . তাহার পরে গঙ্গানারায়ণ, গ্রামস্থ ব্ৰাহ্মণগণকে সঙ্গে করিয়া ঠাকুর মহাশয়ের নিকটে খেতরি উপস্থিত হইলেন। ঠাকুর মহাশয় সকলকেই ; আলিঙ্গন দান করিয়া মন্ত্ৰ-দীক্ষা দিলেন । বৈষ্ণব-ধৰ্ম্ম প্রচার গৌরাঙ্গদাসদিগের এক প্রধান কাৰ্য্য। বৈষ্ণব= ধৰ্ম্ম প্রচারের বিরোধী ব্ৰাহ্মণ পণ্ডিতগণ । ব্ৰাহ্মণগণ বলেন, বর্ণের শুরু ব্ৰাহ্মণ। গৌর ভক্তগণ বলেন, যিনি ভক্ত তিনি শুরু। সুতরাং বৈষ্ণব? ধৰ্ম্ম, ব্ৰাহ্মণগণের অৰ্ত্তিমানের বিরোধী। বৈষ্ণবগণ ৰলেন যে, সেই ব্ৰাহ্মণ, ষে ভগবানের দাস। ঊাহাৱা আরো বলেন যে, ভক্ত ৰদি চণ্ডাল 1 ܨܬܐ digitized at BRC in dia, Corn