পাতা:শ্রীনরোত্তম চরিত - শিশিরকুমার ঘোষ.pdf/৮৪

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ar orse verb arte রামচন্দ্র ও গোবিন্দ তাঁহাজের পিতা চিরঞ্জীবের বৈষ্ণৱধৰ্ম্ম ত্যাগ ... ... ? করিয়া, শাক্ত হইলেন । রামচন্দ্ৰ মহামহোপাধ্যায় পণ্ডিত, মদনের ন্যায় রূপবান, চরিত্ৰ নিৰ্ম্মল । রামচন্দ্ৰ, আচাৰ্য্যপ্রভুর নিকট মন্ত্ৰ লইলেন, লইয়া আবার পিতার ধৰ্ম্মে আসিলেন । কনিষ্ঠ গোৱিন্দ মৃত্যুশয্যায় শান্বিত হইয়া দাদা রামচন্দ্রকে লিখিলেন যে, তিনি যেন আচাৰ্য প্রভুকে খf লইয়া আইসেন, তাহার নিকট। মৃত্যুর মন্ত্র লাইবেন । রামচন্দ্র তখন । জাজিগ্রামে ছিলেন, তিনি আচাৰ্য্য প্রভুকে সঙ্গে লইয়া নিজ বাটী বুথুরি গ্রামে আসিলেন । , রামচন্দ্র, ঠাকুর মহাশয়ের বাম হস্ত ধরিয়া আনিতেছেন। উভয়ে আড়নয়নে দৰ্শন করিতেছেন। ঠাকুর মহাশয় ভাবিতেছেন, এ ব্যক্তিটি কে? স্পশা করিয়া আমার এত আনন্দ অনুভব হইতেছে কেন ? রামচন্দ্ৰ ভাবিতেছেন, ঠাকুর মহাশয়ের নাম শুনিয়াছিলাম, শুধু ঠাকুর নন, ইনি যে কেবল মধুর। করে করে লিপ্ত, উভয়ে উভয়ের স্পর্শ স্থখ ७ङद কিজিতেছেন। ॐांकूद्ध भक्षशब्र डांबिहडदछन, बैcशोब्रांत्र कि আমাকে এই সঙ্গিটা মিলাইয়া দিবেন? রামচন্দ্ৰ ভাবিতেছেন, আমি কি ঠাকুর মহাশয়ের চরণ-সেবা ও সঙ্গ পাইব ?.........." ঠাকুর মহাশয়ের আচাৰ্য্য প্রভুর সহিত বহু দিন পরে মিলন হইল ॥ " ঠাকুর মহাশয় প্ৰণাম করিলেন, আচাৰ্য্য প্ৰভু আলিঙ্গন করিলেন । ] তাহারা বসিলেন, চতুঃপার্থে শিষ্যগণ বসিলেন। পরম্পর পরস্পরের * কাহিনী বলিতে লাগিলেন। সকলে দেহের চেষ্টা ভুলিয়া গেলেন। এমন সময় রামচন্দ্র, ঠাকুর মহাশয়কে স্নান করিতে অনুরোধ করিলেন । । ২. কিন্তু কে স্বান করে, কে বা ভোজন করে,-কৃষ্ণ-কথায়, গৌর-কথায়, আনন্দে সকলে বিভোর। এইরূপে দিবা অতীত হইল, নিশিও গোল যখন ঠাকুর মহাশয় কথা বলেন, তখন রামচন্দ্ৰ ভঁাহার মুখ পানে চাহিয়া

  • digitized at BRCIndia.com