পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/১০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নবম খণ্ড গ্রঞ্চ পরিচ্ছদ দক্ষিণেশ্বরে ভক্তসঙ্গে—২৩শে সেপটেম্বর, ১৮৮৩ ঐরামকৃষ্ণ দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে ভক্তসঙ্গে বসিয়া আছেন। রাখাল, মাষ্টার, রাম, হাজরা প্রভৃতি ভক্তগণ উপস্থিত আছেন। হাজরা মহাশয় বাহিরের বারান্দায় বসিয়া আছেন। আজ রবিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর ১৮৮৩, ভাদ্রকৃষ্ণা-সপ্তমী। • নিত্যগোপাল, তারক প্রভৃতি ভক্তগণ রামের বাড়ীতে থাকেন। তিনি তাহাদের যত্ন করিয়া রাখিয়াছেন । রাখাল মাঝে মাঝে ত্রযুক্ত অধর সেনের বাড়ীতে গিয়া থাকেন। নিত্যগোপাল সৰ্ব্বদাই ভাবে বিভোর। তারকেরও অবস্থা অন্তর্মুখ ; তিনি লোকের সঙ্গে আজকাল বেশী কথা কন না। .* [ শ্রীরামকৃষ্ণের ভাবনা—নরেন্দ্রের জন্ত ] ঠাকুর এইবার নরেঞ্জের কথা কহিতেছেন। শ্রীরামকৃষ্ণ ( একজন ভক্তের প্রতি )—নরেন্দ্র তোমাকেও like করে না । ( মাষ্টারের প্রতি ) কই, অধরের বাড়ী নরেন্দ্র এল না কেন ? ዓ একাধারে নরেজের কত গুণ! গাইতে, বাজাতে, লেখা-পড়ায়! সেদিন কাপ্তেনের গাড়ীতে এখান থেকে যাচ্ছিল ; কাপ্তেন অনেক করে বল্পে, তার কাছে বসতে। নরেঞ্জ ওধারে গিয়ে বসল ; কাপ্তেনের দিকে চেয়েও দেখলে না | [ শাক্ত গৌরী পণ্ডিত ও শ্রীরামকৃষ্ণ } “শুধু পাণ্ডিত্যে কি হবে ? সাধন-ভজন চাই। ইদেশের গৌরী,—পণ্ডিতও