পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/১৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শ্ৰীযুক্ত রামচজের বাগানে স্ত্রীরামকৃষ্ণ ভক্তসঙ্গে రిరి কিয়ৎক্ষণ পরে সমস্ত বাগান পরিক্রমা করিতেছেন । এইবার নিকটবর্তী সুরেজের বাগানে যাইতেছেন। পদব্রজে খানিকট। গিয়া গাড়ীতে উঠিৰেন। গাড়ী করিয়া সুরেন্ত্রের বাড়ীতে যাইবেন। *E. পদব্ৰজে যখন ভক্তসঙ্গে যাইতেছেন, তখন শ্রীরামকৃষ্ণ দেখিলেন যে পাশ্বের বাগানে গাছতলায় একটী সাধু একাকী খাটিয়ায় বসিয়া আছেন। দেখিয়াই তিনি সাধুর কাছে উপস্থিত হইয়া আনন্দে তাহার সহিত হিন্দীতে কথা কহিতেছেন। g 酚 ত্রীরামকৃষ্ণ (সাধুর প্রতি )—আপনি কোন সম্প্রদায়ের—গিরি বা পুরী কোনো উপাধি আছে ? সাধু—লোকে আযtয় পরমহংস বলে। শ্ৰীরামকৃষ্ণ—বেশ, বেশ। শিবোহহং এ বেশ। তবে একটী কথা । আছে। এই স্বষ্টি, স্থিতি, প্রলয় রাত দিন হচ্ছে—তার শক্তিতে। এই আস্তাশক্তি আর ব্রহ্ম অভেদ । ব্ৰহ্মকে ছেড়ে শক্তি হয় না। যেমন জলকে ছেড়ে তরঙ্গ হয় না। বাদ্যকে ছেড়ে বাজনা হয় না । যতক্ষণ তিনি এই লীলার মধ্যে রেখেছেন, ততক্ষণ দুটো ব’লে বোধ হয়। শক্তি বললেই ব্ৰহ্ম আছেন। যেমন রাত বোধ থাকলেই দিন বোধ আছে। জ্ঞান বোধ থাকলেই অজ্ঞান বোধ আছে। “আর একটী অবস্থায় তিনি দেখান যে ব্রহ্ম, জ্ঞান অজ্ঞানের পার, মুখে কিছু বলা যায় না। যে হায় সে হ্যায়।” . . এরূপ কিছু সদালাপ হইবার পর হীরামকৃষ্ণ গাড়ীর দিকে যাইতেছেন। সাধুটীও সঙ্গে তাকে গাড়ীতে তুলিয়া দিতে আসিতেছেন। ত্রীরামকৃষ্ণ যেন অনেকদিনের পরিচিত বন্ধু, সাধুর বাহুর ভিতর বাহু দিয়া গাড়ীর অভিমুখে যাইতেছেন। so সাধু তাহাকে গাড়ীতে তুলিয়া দিয়া নিজ স্থানে চলিয়া আসিলেন। এইবার স্বরেজের বাগানে শ্রীরামকৃষ্ণ আসিয়াছেন। ভক্তসঙ্গে আসন গ্রন্থণ করিয়া প্রথমেই সাধার কথা কহিতেছেন।

  • * „