পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঐরামকৃষ্ণ প্রাণকৃষ্ণের বাটতে Ot হয় না, সৰ্ব্বদাই দরকার ; রোগ লেগেই আছে। আবার বৈদ্যের কাছে না থাকলে নাড়ীজ্ঞান হয় না, সঙ্গে সঙ্গে ঘুরতে হয়। তবে কোনটি কফের নাড়ী, কোনটি পিক্তের নাড়ী বোঝা যায় ! ভক্ত—সাধুসঙ্গে কি উপকার হয় ? ত্রীরামকৃষ্ণ—ঈশ্বরে অনুরাগ হয়। র্তার উপর ভালবাসা হয়। ব্যাকুলত না এলে কিছুই হয় না। সাধুসঙ্গ করতে করতে ঈশ্বরের জন্ত প্রাণ ব্যাকুল হয়। যেমন বাড়ীতে কারুর অসুখ হলে সৰ্ব্বদাই মন ব্যাকুল হয়ে থাকে, কিসে রোগী ভাল হয়। আবার কারু যদি কৰ্ম্ম যায়, সে ব্যক্তি যেমন অফিসে অফিসে ঘুরে ঘুরে বেড়ায়, ব্যাকুল হতে হয় সেইরূপ । যদি কোন অফিসে বলে কৰ্ম্ম খালি নেই, আবার তাহার পরদিন এসে জিজ্ঞাসা করে, আজ কি কোন কৰ্ম্ম খালি হয়েছে ? Z “আর একটি উপায় আছে—ব্যাকুল হয়ে প্রার্থনা । তিনি যে আপনার লোক, তাকে বলতে হয়, তুমি কেমন, দেখা দাও—দেখা দিতেই হবে—তুমি আমাকে স্বষ্টি করেছ কেন ? শিখরা বলেছিল, ঈশ্বর দয়াময় ; আমি তাদের বলেছিলাম, দয়াময় কেন বলবো ? তিনি আমাদের স্বষ্টি করেছেন, যাতে আমাদের মঙ্গল হয়, তা যদি করেন সে কি আর আশ্চৰ্য্য, মা-বাপ ছেলেকে পালন করবে, সে আবার দয়া কি ? সে ত করতেই হবে, তাই তাকে জোর ক’রে প্রার্থনা করতে হয় । তিনি যে আপনার মা আপনার বাপ । ছেলে যদি থাওয়া ত্যাগ করে, বাপ মা ৩ বৎসর আগেই হিস্তা ফেলে দেয়। আবার যখন ছেলে পয়সা চায়, আর পুনঃপুনঃ বলে, ‘ম, তোর দুটি পায়ে পড়ি, আমাকে দুটি পয়সা দে, তখন মা ব্যাজার হয়ে তার ব্যাকুলত দেখে পয়সা ফেলে দেয় | “সাধুসঙ্গ করলে আর একটি উপকার হয়। সদসৎ বিচার। সৎ, নিত্য পদার্থ অর্থাৎ ঈশ্বর। অসৎ অর্থাৎ অনিত্য। অসৎপথে মন গেলেই বিচার করতে হয় । হাতী পরের কলাগাছ খেতে শুড় বাড়ালে সেই সময় মাহুত • ডাঙ্গস মারে । প্রতিবেশী—মহাশয়, পাপবুদ্ধি কেন হয় ?