পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/২৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


&Qも শ্ৰীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত—৫ম ভাগ পরিশিষ্ট বিষয় চিন্তা করলে পাটোয়ারি স্বভাব হয়, মানুষ কপট হয়। ঈশ্বর চিন্ত৷ করলে সরল হয়, ঈশ্বর সাক্ষাৎকার হ’লে ও কথা কেউ বলবে না। [ শ্ৰীযুক্ত বঙ্কিম—শুধু পাণ্ডিত্য ও কামিনী-কাঞ্চন ] স্ত্রীরামকৃষ্ণ (বঙ্কিমের প্রতি )—শুধু পাণ্ডিত্য হ’লে কি হবে, যদি ঈশ্বরচিন্তা না থাকে? যদি বিবেক-বৈরাগ্য না থাকে ? পাণ্ডিত্য কি হবে, যদি কামিনী কাঞ্চনে মন থাকে ? “চিল, শকুনি খুব উচুতে উঠে,কিন্তু ভাগাড়ের দিকে কেবল নজর! পণ্ডিত অনেক বই শাস্ত্র পড়েছে, শোলোক ঝাড়তে পারে কি বই লিখেছে, কিন্তু মেয়ে মামুষে আসক্ত, টাকামান সার বস্তু মনে করেছে ; সে আবার পণ্ডিত কি ? ঈশ্বরে মন না থাকলে পণ্ডিত ? “কেউ কেউ মনে করে এরা কেবল ঈশ্বর ঈশ্বর করছে ; পাগলা ! এরা বেহেড হয়েছে। আমরা কেমন স্তায়ন, কেমন সুখভোগ করছি ; টাকা, মান, ইঞ্জিয়মুখ। কাকও মনে করে, আমি বড় স্তায়না, কিন্তু সকালবেল উঠেই পরের গু খেয়ে মরে : কাক দেখো না কত উড়র পুড়র করে, ভারি স্তায়না!” ( সকলে স্তব্ধ ) । “যারা কিন্তু ঈশ্বর চিন্তা করে, বিষয়ে আসক্তি কামিনীকাঞ্চনে ভালবাসা চলে যাবার জন্ত রাত দিন প্রার্থনা ক’রে, যাদের বিষয় রস তেতো লাগে, হরিপাদপদ্মের সুধা বই আর কিছু ভাল লাগে না, তাদের স্বভাব যেমন হাসের স্বভাব। হাসের সুমুখে দুধেজলে দাও, জল ত্যাগ করে দুধ খাবে। আর হাসের গতি দেখেছে ? এক দিকে সোজা চলে যাবে। শুদ্ধ ভক্তের গতিও কেবল ঈশ্বরের দিকে। সে আর কিছু চায় না ; তার আর কিছু ভাল লাগে না । ( বঙ্কিমের প্রতি কোমল ভাবে ) আপনি কিছু মনে করে না।” বঙ্কিম-আজ্ঞা, মিষ্টি শুনতে আসিনি।